সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

বিয়ের দিন কনেকে ছুরিকাঘাতে হত্যা, ঘাতক গ্রেপ্তার

বিয়ের দিন কনেকে ছুরিকাঘাতে হত্যা, ঘাতক গ্রেপ্তার

বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি
রংপুরের বদরগঞ্জে বিয়ের দিন কনে তারমিনা আক্তার ওরফে ফুলতিকে (১৪) ছুরিকাঘাতে হত্যার একমাত্র আসামী ঘাতক পলাতক শাখাওয়াত হোসেনকে গাজীপুরের কালিয়াকৈর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল সোমবার (২ আগস্ট) দুপুরে পুলিশের যৌথ দল তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে তাকে গ্রেপ্তার করে। ঘটনার পর থেকে সে এতদিন দেশের বিভিন্ন স্থানে পলাতক ছিল। তাকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান।

 

গত ২৮ জুলাই ঘটনাটি ঘটে রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার লোহানীপাড়া ইউনিয়নের সাজানো গ্রাম এলাকায়। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় পাষÐ মিঠাপুকুর উপজেলার বড়বালা ইউনিয়নের পশ্চিম বড়বালা এলাকার মোনায়েম হোসেনের ছেলে শাখাওয়াত হোসেন বিয়ের দিন ভোরে ঘুম থেকে ডেকে তুলে ছুরিকাঘাত করে নবম শ্রেণীর মাদরাসা শিক্ষার্থী তারমিনা আক্তারকে কুপিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়। এর পর তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালের সার্জারী বিভাগে ভর্তি করা হয়। সেখানে পাঁচদিন মৃত্যুর সঙ্গে যুদ্ধ করে গত রবিবার ভোর ৬ টা ১০ মিনিটে সে মারা যায়। ওই দিন ময়না তদন্ত শেষে তারমিনার মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। তারমিনা লোহানীপাড়া দাখিল মাদরাসার নবম শ্রেণিতে পড়তো। সে তোয়াব আলী ও পারভিন আক্তার দম্পত্তির সন্তান ছিল। তারমিনাকে ছুরিকাঘাতের পরের দিন ২৯ জুলাই ঘাতক শাখাওয়াত হোসেনের বিরুদ্ধে তারমিনার মামা নূর আলম বদরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছিলেন। পরে ওই মামলা হত্যা মামলায় রুপান্তর হয়। এরপর হতে বাড়ি থেকে পালিয়ে ছিল শাখাওয়াত হোসেন।

 

বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, ঘটনার পর থেকে আসামীকে ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। অবশেষে আজ (সোমবার) পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সমন্বয়ে বদরগঞ্জ থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে গাজীপুরের কালিয়াকৈর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com