বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৪৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাঘায় ৩৩৩ নম্বরে কল দিয়ে খাবার পেলেন ৩০ পরিবার

বাঘায় ৩৩৩ নম্বরে কল দিয়ে খাবার পেলেন ৩০ পরিবার

নিজস্ব প্রতিনিধি :

করোনার দ্বিতীয় ধাক্কায় জীবন-জীবিকা নিয়ে উভয় সংকটে পড়েছে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ। সংক্রমন ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়ায় ফের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। চলছে একাধারে লকডাউন।এ পরিস্থিতিতে সঞ্চয় ভেঙ্গে খাওয়া মানুষদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে প্রায়।ফলে দীর্ঘদিন ঘরবন্দী হয়ে থাকা এসব মানুষের জন্যে জাতীয় শর্টকোড নম্বর ৩৩৩ এ কল করলে সরকারি ভাবে দেয়া হচ্ছে খাদ্য সহায়তা ।

 

সেই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার(৩-সেপ্টেম্বর) সকালে বাঘা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৩০ টি পরিবারের  মধ্যে খাদ্য সহায়তা হিসাবে চাল বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা  প্রকল্প বাস্তবায়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে এ ত্রান বিতরণ করেন বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাপিয়া সুলতানা। এ সময় তাঁর সাথে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা  কৃষি কর্মকর্তা, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা এবং আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে সমাজের অভিজ্ঞ মহলের সাথে কথা বললে তারা বলেন, করোনার দীর্ঘায়িত প্রভাবে ক্রমেই নি:স্ব হয়ে পড়ছে সাধারণ মানুষ। তাদের আয় কমে যাচ্ছে। জীবন রক্ষার তাগিদে জীবিকা হারাচ্ছে অসংখ্য দুস্থ । এদের কেউই  তথ্য সেবা বোঝে না। বোঝেনা ৩৩৩ নম্বরে কি ভাবে কল দিয়ে কথা বলতে হয়। লোকমুখে খবর পেয়ে অনেকেই তাদের সন্তান কিংবা প্রতিবেশী শিক্ষিতদের মাধ্যমে ইতোমধ্যে কল দিয়ে খাদ্য পেয়েছেন।  তাদের মতে, কোনো রকম প্রচারণা ছাড়াই যে অবস্থা চালু হয়েছে। এদিক থেকে মাইকিং করে প্রচারণা হলে তখন না জানি কি পরিস্থিতি দাঁড়াবে !

 

তবে চাল পাওয়া বাজুবাঘা নতুন পাড়া গ্রামের হত দরিদ্র শরিফা বেগম বলেন, আমার স্বামী একজন ভ্যান চালক। লকডাউনের কারনে পুলিশের ভয়ে বাড়ি থেকে ভ্যান নিয়ে  বের হতে পারছে না। এ অবস্থায় সরকার ৩৩৩ নম্বরে কল দিয়ে যে ত্রান সামগ্রী দেয়ার ব্যবস্থা করেছেন এতে আমরা খুশি হয়েছি।

 

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com