সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন

রাজশাহী মহানগরীতে গণটিকা নিতে কেন্দ্র গুলোতে উপচে পড়া ভির

রাজশাহী মহানগরীতে গণটিকা নিতে কেন্দ্র গুলোতে উপচে পড়া ভির

মো: সেলিম হোসেন, রাজশাহী প্রতিনিধি :

রাজশাহীর কেন্দ্রগুলোতে দীর্ঘ লাইন। সবার হাতে হাতে ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি। দেখে মনে হবে কোনো জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে ভোট দিতে এসেছেন ভোটাররা। কিন্তু বাস্তবে তা নয়। মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নিজেদের শরীরে এন্টিবড়ি তৈরীতে করোনার গণটিকা নিতেই এই দীর্ঘ লাইন।

 

রাজশাহী মহানগরীর ৩০টি ওয়ার্ডের ৮৪টি কেন্দ্রের অন্তত ১৫টি কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে- টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে মানুষের উপচেপড়া ভিড়। সকাল থেকেই দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন কাঙ্খিত সেই টিকার জন্য। কেউ কেউ সকাল ৭-৮টার মধ্যে টিকা নিতে চলে গিয়েছেন কেন্দ্রে কেন্দ্রে। শনিবার (০৭ আগস্ট) সকাল ৯টা থেকে এক এক করে টিকা গ্রহন করেন তারা। টিকা নিতে আসা পুরুষের চেয়ে নারীদের সংখ্যা অনেক বেশী বলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে।

 

রাজশাহী নগরীর ১৬ নং ওয়ার্ড কার্যালয় কেন্দ্রে টিকা নিতে এসেছিলেন মথুর ডাঙ্গার সুর্য তিনি বলেন, ‘গণটিকা নিতে এসে আমি খুবই খুশি। কারণ করোনা যেভাবে মানুষের প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে তা ভাবতেই অবাক লাগে। অদৃশ্য এই শক্তিকে মোবাবেলা করে পরিস্থিতি দ্রæত স্বাভাবিক হোক এজন্যই পরিবারের ২৫ বছরের উর্ধ্বে যারা রয়েছেন তাদের সবাইকে কেন্দ্রে নিয়ে এসেছি টিকা দিতে।

 

নগরীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান সরকারি ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রে টিকা নিতে আসা আজমত আলী বলেন, ‘নগর পিতাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি এজন্য যে, শুধু তার কারণেই মহানগরীর প্রায় দেড় লাখ মানুষ গণটিকা নিতে পারছে। এতো বেশি পরিমাণে দেশের কোন সিটি কর্পোরেশন টিকা পেয়েছে বলে আমার জানা নেই।’ তিনি আরও বলেন, আমি নিজে থেকে উদ্বুদ্ধ হয়ে আমার পরিচিত এবং আশেপাশের যারা রয়েছেন তাদেরকে করোনার গণটিকা নিতে উদ্বুদ্ধ করছি।’

 

দুপুর সাড়ে ১২টায় পর্যন্ত কেন্দ্রে ঘুরে দেখা গেছে- টিকার পরিমাণের চেয়ে অনেক মানুষ টিকা নিতে লাইনে অপেক্ষা করছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, অনেক কেন্দ্রে টিকা শেষ হওয়ায় ১২ টার মধ্যে অনেককে টিকা না দিয়েই ফিরেও যেতে দেখা গেছে ।

রাসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম বলেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ৩০টি ওয়ার্ডে ৮৪টি কেন্দ্রে একযোগে সকাল থেকে টিকা কার্যক্রম শুরু হয়। প্রতিটি কেন্দ্রে ৩০০ জন করে টিকা পাবেন। আগামী ১২ আগস্ট পর্যন্ত প্রতিদিন এ টিকা কার্যক্রম চলবে। সে পরিমান টিকা মজুদ রয়েছে বলেও জানান তিনি।

 

 

রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. কাউয়ুম তালুকদার বলেন, রাজশাহী জেলার ৭৩টি ইউনিয়নেই গণটিকা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে তিনটি করে বুথে টিকা দেয়া হচ্ছে। প্রতিটি বুথে ৬০০ জন করে টিকা পাবেন। টিকাদানে বৃদ্ধ, প্রতিবন্ধি ও নারীদের অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে। সকাল থেকে প্রতিটি টিকা কেন্দ্রে প্রচুর সংখ্যক মানুষ উপস্থিত হয়েছে টিকা প্রহন করছেন বলে জানান তিনি।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com