শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৪১ অপরাহ্ন

মধুখালীতে নদীর তীব্র ভাঙ্গনে দিশেহারা তীরের মানুষ

মধুখালীতে নদীর তীব্র ভাঙ্গনে দিশেহারা তীরের মানুষ

অল নিউজ ডেস্ক :
মধুমতী নদীর তীব্র ভাঙ্গনে দিশেহারা ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার কামারখালী ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের মানুষ। এরই মধ্যে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে ফসলি জমি, বাড়িঘর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ-মাদ্রাসা সহ অসংখ্য স্থাপনা। ভাঙ্গন হুমকিতে রয়েছে রউফনগরে অবস্থিত বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ল্যান্সনায়েক মুন্সি আব্দুর রউফ গ্রন্থাগার ও স্মৃতি জাদুঘর।

 

জানা যায়, মধুমতী নদীর পানির বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার কামারখালী ইউনিয়নের দয়ারামপুর, রউফনগর, চরগয়াসপুর, জারজাননগর, বকশিপুর, গন্ধখালী ও ফুলবাড়িয়া গ্রামের প্রায় ৫শ পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। পাশাপাশি ওই সকল এলাকায় দেখা দিয়েছে নদী ভাঙ্গন। আতঙ্কের মধ্য দিয়ে দিন কাটছে নদী তীরের বাসিন্দাদের।

 

কামারখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাহিদুর রহমান বিশ্বাস বাবু বলেন, মধুমতী নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমার ইউনিয়নের ৬/৭ গ্রামের প্রায় ৫‘শ পরিবার পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে। সুপেয় পানি ও গবাদি পশুর খাদ্য সঙ্কট দেখা দিয়েছে। এখন পর্যন্ত তাদের কোনো সহায়তা দিতে পারিনি।

 

ফরিদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ বলেন, বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ল্যান্সনায়েক মুন্সি আব্দুর রউফ গ্রন্থাগার ও স্মৃতি জাদুঘরে যাওয়ার সড়কটির কয়েকটি অংশ বিলীন হয়ে যায়। সেখানে জিও ব্যাগ ফেলে বাধ দেওয়া হয়েছে। সড়কটি দিয়ে এখন মানুষ চলাচল করতে পারছে। তিনি আরও বলেন, এছাড়া যেসকল এলাকায় ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে, ওই এলাকাগুলো ইতিমধ্যেই পরিদর্শন করা হয়েছে। দ্রুতই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com