সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন

কাবুল বিমানবন্দরে পর পর ৫টি রকেট হামলা

কাবুল বিমানবন্দরে পর পর ৫টি রকেট হামলা

অল নিউজ ডেস্ক :
কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রকেট হামলা হয়েছে। বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত এক মার্কিন সেনা কর্মকর্তা বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, স্থানীয় সময় সোমবার ভোরবেলায় কাবুল বিমানবন্দর লক্ষ্য করে অন্তত ৫ টি রকেট ছোড়া হয়েছে; তবে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে সবগুলোকেই অকার্যকর করে দেওয়া সম্ভব হয়েছে।

 

বিমানবন্দরের উত্তর দিক থেকে এই রকেটগুলো ছোড়া হয়েছে উল্লেখ করে ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, হামলায় এখন পর্যন্ত হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

গত বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) কাবুল আন্তর্জাতিক বিমাবনবন্দর এলাকায় পর পর দু’টি বোমা হামলা হয়েছিল। এর মধ্যে একটি ছিল আত্মঘাতী। বোমা হামলার পর গুলিবর্ষণও করেছিল সন্ত্রাসীরা।

ভয়াবহ সেই হামলায় এখন পর্যন্ত ১৭০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে ১৩ জন মার্কিন সেনা সদস্য এবং বাকিরা সবাই বেসামরিক আফগান নাগরিক।

 

 

আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের খোরাসান শাখা (আইএস-কে) এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। সেই হামলার পর রোববার দিবাগত রাতে আফগানিস্তানের নানগাহার প্রদেশে আইএসের ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা চালিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী। বিমানবন্দরে বোমা হামলার মূল পরিকল্পনাকারী সেই ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনী।

 

রোববার যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রধান ফ্র্যাঙ্ক ম্যাকেঞ্জি কাবুল বিমানবন্দরে ফের হামলার শঙ্কা জানিয়ে বলেছিলেন, ‘আমার কাছে থাকা তথ্য অনুযায়ী, এবার কাবুল বিমানবন্দরে রকেট হামলার পরিকল্পনা করছে আইএস। তবে খুব বেশি ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা নেই, কারণ আমাদের হাতে রকেট ও মর্টার প্রতিরোধী সুরক্ষা ব্যবস্থা আছে।’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও রোববার একই শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন।

 

কাবুল বিমানবন্দরে বোমা হামলার দায় আইএস-কে স্বীকার করলেও সোমাবারের রকেট হামলার দায় এখন পর্যন্ত কোনো ব্যক্তি বা সংগঠন স্বীকার করেনি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে নানগারে হামলার প্রতিশোধ হিসেবে বিমানবন্দর লক্ষ্য করে রকেট ছুড়েছে আইএস।

 

কাবুল বিমানবন্দর বর্তমানে মার্কিন বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বিমানবন্দর থেকে সামরিক-বেসামরিক লোকজন সরিয়ে নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ৩১ আগস্ট আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের শেষ দিন। শেষ মুহূর্তে লোকজনকে সরিয়ে নিতে জোর তৎপরতা চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এর মধ্যেই বিমানবন্দর লক্ষ্য করে রকেট ছোড়া হলো।

 

 

এদিকে, বিমানবন্দর এলাকায় অবস্থানরত মার্কিন সেনা বাহিনীর সদস্যদের নিরাপত্তা জোরদার করার নির্দেশ দিয়ে সোমাবর একটি বিবৃতি দিয়েছে হোয়াইট হাউস।

সেই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘মাননীয় প্রেসিডেন্ট নির্দেশ দিয়েছেন- বিমানবন্দর এলাকায় আমাদের যেসব সেনা সদস্য অবস্থান করছে, তাদের নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে।’

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com