সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

রাজশাহীতে বাস বন্ধ, বিআরটিসি একমাত্র ভরসা

রাজশাহীতে বাস বন্ধ, বিআরটিসি একমাত্র ভরসা

রাজশাহী ব্যুরো :

হঠাৎ করেই ডিজেলের দাম বৃদ্ধির কারণে আজ শুক্রবার হতে কর্মবিরতি শুরু করেছে রাজশাহী পরিবহন মালিক- শ্রমিকরা। ফলে রাজশাহী হতে জেলা ও আন্ত:জেলার কোন প্রকার বাস ছেড়ে যায়নি। এতে বিপাকে পড়েছে যাত্রীরা। তবে পরিবহন মালিকরা কর্মবিরতি ডাকলেও মহাসড়কে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশনের (বিআরটিসি) বাস চলাচল করছে নিয়মিত। মহাসড়কে বিআরটিসি বাসই একমাত্র যাত্রীদের ভরসা।
তবে বিআরটিসি বাসের সংখ্যা পর্যাপ্ত না থাকায় যাত্রীসেবা পুরোপুরি চাহিদা মেটাতে পারছে না বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ।

 

শুক্রবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ হতে ছেড়ে আসা বিআরটিসি বাস গুলো রাজশাহী নগরীর মধ্য দিয়ে বিভিন্ন জেলায় ছেড়ে গেছে। এছাড়াও নগরীর বিআরটিসি বাস কাউন্টারগুলো হতে যাত্রীরা টিকেটে নিয়ে বিভিন্ন গন্তেব্যে যাচ্ছে। বাস মালিকদের পক্ষ হতে বাস চলাচল বন্ধ হওয়ায় বিআরটিসি বাসের উপর যাত্রীদের চাপ বেড়েছে অনেকাংশে।
এছাড়াও মহাসড়কে অটোরিকশার সংখ্যা দেখা গেছে প্রতিদিনের মতই। অনেকে রাজশাহী নগরীতে অটোরিকশায় জরুরী কাজে আসছে। তবে রিকশা ও অটোরিকশায় ভাড়া বেশী নিচ্ছে বলে যাত্রীদের সাথে কথা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

 

কর্মবিরতির প্রথমদিন শুক্রবার হওয়ায় অনেক চাকরি প্রার্থীরা পড়েছে বিপাকে। আবার যারা জরুরী কাজে ঢাকা যাবে তারা শহরে এসে পড়েছে বিপাকে। রাজশাহী শিরোইল বাস টার্মিনালে আসা এক যাত্রী জানান, আমার ঢাকা যাওয়া খুবই জরুরী কিন্ত হঠাৎ বাস বন্ধ থাকায় বিপাকে পড়েছি। ভেঙ্গে ভেঙ্গে রাজশাহী যাবো তারও পথ দেখছি না। তবে হঠাৎ করে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি ও বাস বন্ধ করা ঠিক হয়নি বলে তিনি জানান।

 

এদিকে ডিজেলের দাম কমানো বা ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়ে ঘোষণা না আাসা পর্যন্ত এ কর্মবিরতি চলবে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী মটোর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী। ডিজেল ও কেরসিনের দাম লিটার প্রতি ১৫ টাকা বৃদ্ধির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে এ কর্মবিরতির ঘোষণা দেয়া হয়।

 

মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, তেলের দাম বাড়ানো হলেও যানবাহনের ভাড়ার বিষয়ে কোন ঘোষণা আসানি। এ অবস্থায় আমরা বেশী ভাড়া নিতে চাইলে যাত্রদের ঝামেলা হবে। তাই বাধ্য হয়ে বাস বন্ধ রাখতে হচ্ছে। ভাড়া বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসার পর রাস্তায় যানবাহন নামানো হবে।

 

রাজশাহী বিভাগীয় সকড় পরিবহন মালিক সমিতি সভাপতি সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব বলেন, হঠাৎ করে ডিজেলের দাম অসাভাবিক হারে বৃদ্ধি এবং এর সাথে সমন্বয় করে বাসের ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়টি সুরাহা করা হয়নি। এ কারণে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সিদ্ধান্দ অনুযায়ী শুক্রবার সকল ৬টা থেকে অনিদৃষ্টিকালের জন্য কর্মবিরতি চলছে। আমাদের প্রথম দাবি তেলের দাম কমানো। তবে দাম না কমানো হলেও ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিতে হবে। এর পর সড়কে নামবে যানবাহন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com