বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:০৩ পূর্বাহ্ন

নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে কেউ মারা যায়নি : ইসি সচিব

নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে কেউ মারা যায়নি : ইসি সচিব

অল নিউজ ডেস্ক :
নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেছেন, দ্বিতীয় ধাপের ৮৩৪ ইউনিয়ন পরিষদে খুব সুন্দর ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হয়েছে। নির্বাচনকে ঘিরে সহিংসতায় নিহতদের মধ্যে কেউ ভোটকেন্দ্রে মারা যায়নি।

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বিজয়ের জন্য প্রার্থীর অতি আবেগী হয়ে যাওয়ার কারণেই এসব সহিংসতা হয় বলে মনে করছেন ইসি সচিব।

 

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নির্বাচন ভবনে দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

নির্বাচনে সহিংসতার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, ২০১৬ সালে যে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হয়েছে সেসব নির্বাচনের ডাটাগুলো আপনাদের (গণমাধ্যম) মাধ্যমেই আমরা নিয়েছি। সেখানে আমরা দেখেছি মোট ৮৪ জন মানুষ মারা গেছেন। কিন্তু আজ ৬ জন মারা গেছে। যদিও সেটি নিঃসন্দেহে কমিশনের জন্য দুঃখজনক।

 

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের কাছে জেলা প্রশাসক এবং রিটার্নিং কর্মকর্তারা যেভাবে ফোর্স চেয়েছেন আমরা সেটি ডেপ্লয় করেছি। আমরা মনে করি এখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, ম্যাজিস্ট্রেট, রিটার্নিং অফিসার এবং নির্বাচনী কর্মকর্তা সবাই অত্যন্ত একটিভ ছিলেন এবং তারা চেষ্টা করেছেন ভালো কাজ করার, সে কারণে ভোট সুষ্ঠু হয়েছে।

কত শতাংশ ভোট পড়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কত শতাংশ ভোট পড়েছে সেটি এ মুহূর্তে বলা কঠিন, যেহেতু ভোট কাউন্ট হচ্ছে। আমরা এ পর্যন্ত যে তথ্য পেয়েছি তাতে ৬৫ থেকে ৭০ ভাগ ভোট কাস্ট হয়েছে।

 

তিনি বলেন, আজ যে ভোট হয়েছে এটি বসে এনালাইসিস করব। এনালাইসিস করে দেখব আর কোন কোন জায়গায় আমাদের জোর দিতে হবে, যাতে ভোট আরও ভালো হয়।

 

ইসি সচিব বলেন, আপনারা বলেছেন ৬ জন মারা গেছেন, এটি ঠিক। এর জন্য কমিশন ব্যথিত। আমরা কখনো চাইব না, রাষ্ট্রের একজন নাগরিকও কোনো কারণে নিহত হোক। তবে আজ যে ছয় জন মারা গেছে তারা কেউ আমাদের ভোট কেন্দ্রে মারা যায়নি। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী যারা, তাদের মধ্যেই ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, তাদের মধ্যেই সহিংসতা হয়েছে এবং তারা মারা গেছেন।

৮ হাজার ৪০০ ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ১০টিতে ব্যালট ছিনতাইয়ের চেষ্টা হয়েছে জানিয়ে ইসি সচিব বলেন, আমাদের প্রিজাইডিং অফিসাররা ওই ১০ কেন্দ্রের ভোট বন্ধ করে দিয়েছেন। এগুলোতে পরে ভোটগ্রহণ করা হবে। অন্য কেন্দ্রগুলো নিয়ে যদি রেজাল্ট না হয় তখন ডিসিশন নিয়ে ভোট নেওয়া হবে।

 

বুধবার চতুর্থ ধাপের ভোটের তফসিল হয়েছে, পরবর্তী ধাপের ভোট নিয়ে আবার কমিশনের বৈঠক হবে বলে জানান ইসি সচিব।

আজ বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দেশের বিভিন্ন স্থানে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। নির্বাচনী সহিংসতায় অন্তত ছয়জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন শতাধিক।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com