শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৭:৪৩ অপরাহ্ন

বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষার হলে সিনথিয়া

বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষার হলে সিনথিয়া

অল নিউজ ডেস্ক 
নরসিংদীর পলাশ উপজেলার সিনথিয়া কবিরের আজ এসএসসি পরীক্ষা। কেন্দ্রে যাওয়ার আগে মা-বাবার কাছ থেকে দোয়া নিয়ে তার হলে যাওয়ার কথা। কিন্তু সেই সৌভাগ্য আর হলো না। সকালে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুবরণ করেছেন বাবা হুমায়ূন কবির (৪৮)। যার পায়ে হাত ছুঁয়ে দোয়া নিয়ে যেতেন পরীক্ষার কেন্দ্রে। কিন্তু চোখের অশ্রু মুছতে মুছতে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছেন তিনি।

 

পরীক্ষায় অংশ নিয়ে এক হাতে চোখের অশ্রু মুছে চলেছেন আর অন্য হাতে কলম চালাচ্ছে পরীক্ষার খাতায়। আর মাঝে মাঝেই ফুঁপিয়ে কেঁদে উঠছে। এই দৃশ্য নরসিংদীর ঘোড়াশাল ডা. নজরুল বিন নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজ পরীক্ষাকেন্দ্রে।

বাবা হুমায়ূন কবির (৪৮) এর লাশ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিলো শোকার্ত মেয়ে সিনথিয়া কবির। বাবাকে হারিয়ে অনেকটা নির্বাক হয়েও সহপাঠী ও কেন্দ্র সচিবের সহযোগিতায় ঘোড়াশাল ডা. নজরুল বিন নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজে প্রথম দিনের পরীক্ষায় অংশ নেয় সে। রবিবার (১৪ নভেম্বর) চলতি এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিন সকালে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। সিনথিয়া কবির উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার জনতা আদর্শ বিদ্যাপীঠের ছাত্রী।

 

নিহতের স্বজনরা জানান, ঘোড়াশাল পৌর এলাকার পলাশ কুটিরপাড়া মহল্লার মৃত মোখলেছ সরদারের ছেলে হুমায়ুন কবির হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ভোরে নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর বাবা হারা সিনথিয়া এসএসসি পরীক্ষা দিতে যায় কেন্দ্রে। এসময় এক হাতে চোখের অশ্রু মুছতে ও অন্য হাতে খাতায় লিখতে দেখা গেছে সিনথিয়া কবিরকে। সিনথিয়া কবিরের বাবার মৃত্যুর খবরে পরীক্ষা কেন্দ্রে শোকের ছায়া নেমে আসে।

ডা. নূর মহসিন বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজর অধ্যক্ষ ও পরীক্ষা কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব রিনা নাসরিন জানান, পরীক্ষার্থী সিনথিয়া কবিরের বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা অবগত হয়েছি। তার জন্য কোনো বিশেষ ব্যবস্থায় পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না। সে সবার সাথে স্বাভাবিক ভাবেই পরীক্ষা দিয়েছে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com