মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৫৮ অপরাহ্ন

মেজর সিনহা হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এএসপি খাইরুলকে টানা ৭ ঘণ্টা জেরা

মেজর সিনহা হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এএসপি খাইরুলকে টানা ৭ ঘণ্টা জেরা

অল নিউজ ডেস্ক :
পুলিশের গুলিতে নিহত সেনাবাহিনীর মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এএসপি খাইরুল ইসলামকে টানা ৭ ঘণ্টা জেরা করেছেন আসামি পক্ষের আইনজীবীরা। বুধবার (১৭ নভেম্বর) ৭ম দফায় শেষ দিন সকাল ১০থেকে সন্ধ্যা ৬টায় আদালত মুলতবির আগ পর্যন্ত তাকে জেরা হরা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগের দিন মঙ্গলবার দিনের প্রথম প্রহরে মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা এএসপি জামিলুল হককে জেরা করেন আসামির আইনজীবীরা। বাকি সময় আদালতে জবানবিন্দ দেন চার্জশিট উপস্থাপনকারী তদন্ত কর্মকর্তা এএসপি খায়রুল ইসলাম।

 

পিপি বলেন, বুধবার ৭ম দফায় শেষ দিন সকাল ১০থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এএসপি খাইরুল ইসলামকে জেরা করেছেন আসামি পক্ষের আইনজীবীরা। এরপর তদন্ত কর্মকর্তার জেরা শেষ হয়নি উল্লেখ করে আগামী ২৯, ৩০ নভেম্বর ও ১ডিসেম্বর মামলার পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

এর আগে সকাল সাড়ে ৯ টায় ওসি প্রদীপ সহ এই মামলার ১৫ জন আসামিকে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থায় আদালতে নিয়ে আসা হয়।

 

উল্লেখ্য, ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর তল্লাশি চৌকিতে পুলিশের গুলিতে মেজর সিনহা নিহত হন। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে তিনটি (টেকনাফে দুটি, রামুতে একটি) মামলা করে। ঘটনার পর (৫ আগস্ট) কক্সবাজার আদালতে প্রদীপ কুমার দাশ, লিয়াকত আলীসহ ৯ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন মেজর সিনহার বড়বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস।

 

আলোচিত এ মামলায় গত বছর ১৩ ডিসেম্বর ওসি প্রদীপসহ ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেন তদন্ত কর্মকর্তা ও র‌্যাব-১৫ কক্সবাজার ব্যাটালিয়নের তৎকালীন দায়িত্বরত সহকারী পুলিশ সুপার খাইরুল ইসলাম। এরপর ২৭ জুন ১৫ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। মামলায় ৮৩ জনকে সাক্ষী মানা হয়েছে। তাদের মধ্যে এই পর্যন্ত ৬৫জনের সাক্ষ্য দিয়েছেন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com