শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:০৪ অপরাহ্ন

কাবা প্রাঙ্গণে মুসল্লিদের সেবায় বাংলাসহ ১১ ভাষায় উত্তর দেবে রোবট

কাবা প্রাঙ্গণে মুসল্লিদের সেবায় বাংলাসহ ১১ ভাষায় উত্তর দেবে রোবট

অল নিউজ ডেস্ক :
মুসল্লিদের অত্যাধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর নানা ধরনের সেবা দেওয়া হচ্ছে মক্কার পবিত্র মসজিদুল হারামে। তারই অংশ হিসেবে এখন মুসল্লিদের নানা প্রশ্নের উত্তর সেবা দিতে ব্যবহৃত হচ্ছে টাচ স্কিন রোবট। অত্যাধুনিক এই রোবটের মাধ্যমে পবিত্র কাবা প্রাঙ্গণে মুসল্লিদের ওমরাহ পালন, ইসলাম বিষয়ক জিজ্ঞাসার জবাবসহ ইসলামী পণ্ডিতদের সঙ্গে কথা বলার স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা করা হয়েছে। খবর আরব নিউজের।

 

জানা গেছে, বিদেশি ওমরাযাত্রীদের জন্য বিশ্বের ১১ ভাষায় তাৎক্ষণিক অনুবাদ সেবাও দিয়ে যাচ্ছে চার চাকার রোবটগুলো। বিশ্বের ১১ ভাষায় মুসল্লিদের সেবা দেবে রিমোট কন্ট্রোল রোবট। আরবি, ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ, রুশ, ফার্সি, তার্কিশ, চাইনিজ, বাংলা ও হাউসাসহ মোট ১১ ভাষায় ইসলামী বিষয়ে নানা ধরনের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে মুসল্লিদের সহায়তা করবে।

 

২১ ইঞ্চির টাচস্ক্রিনের রোবটের সাহায্যে মুসল্লিরা যেকোনো উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে করণীয়, নানা ধরনের দিকনির্দেশনা ও মতপ্রকাশে সহায়তা পাবে। স্মার্ট স্টপেজ সিস্টেম অনুসরণ করে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির রোবটটি সহজেই এক স্থান থেকে অন্য স্থানে চলাফেরা করতে পারে।
‘আল মাকরা আল হারামাইন’ সেবার মাধ্যমে মক্কা ও মদিনার পবিত্র দুই মসজিদের হাফিজদের মাধ্যমে কোরআন পাঠদান করা হয়। এর মাধ্যমে ভালোভাবে কোরআন পাঠ শিখতে আগ্রহী নানা দেশের মুসলিম ও পবিত্র মসজিদুল হারামে আগত মুসল্লিরা কোরআন শিখতে পারে। সহজ পদ্ধতিতে কোরআন পাঠে দক্ষতা অর্জন করে সার্টিফিকেট লাভ করা যায়।

 

মক্কার পবিত্র মসজিদুল হারাম থেকে পরিচালিত দূরশিক্ষণের মাধ্যমে বিশ্বের পবিত্র কোরআন ছয় ভাষায় পাঠদান করা হয়। পবিত্র দুই মসজিদের জেনারেল প্রেসিডেন্সি বিভাগের তত্ত্বাবধানে এ কার্যক্রম পরিচালিত হয়। এ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য স্মার্ট কোরআন ও ই-ডিভাইসও আছে। ফলে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীরাও ব্রেইইল পদ্ধতিতে পবিত্র কোরআন পড়তে পারেন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com