বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন

সরকার আমাদের ভয় পায় বলেই হামলা চালিয়েছে: রেজা কিবরিয়া

সরকার আমাদের ভয় পায় বলেই হামলা চালিয়েছে: রেজা কিবরিয়া

অল নিউজ ডেস্ক :

আওয়ামী লীগকে কিছুদিনের মধ্যে ক্ষমতাচ্যুত করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ড. রেজা কিবরিয়া। বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।
ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, বুধবার গণ অধিকার পরিষদের নেতাদের উপর টাঙ্গাইলে হামলাই প্রমাণ করে আমাদের দলকে সরকার ভয় পায়। কারণ আমরা জোর গলায় অনেক কিছু বলি। কিন্তু অনেকে বিভিন্ন কারণে যেগুলো বলতে চায় না।

 

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, মওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা নিবির পাল ও মানিক শীলের নেতৃত্বে বুধবার গণ অধিকার পরিষদের নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা করা হয়।

রেজা কিবরিয়া বলেন, ছাত্রলীগের ছেলেরা আমাদের ওপর ইট, পাটকেল, লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা করে। আমরা পুলিশের কাছে নিরাপত্তা পেয়েছি। তখন কিছু পুলিশের সদস্য আমাদের সহায়তা করছে, তখন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাদের ওপরও হামলা করেছে। ছাত্রলীগের যে ছেলেরা পুলিশের ওপর আঘাত করেছে, এটার ভিডিও আছে। মানিক শীল ও নিবির পাল দু’জনকেই এলাকার মানুষ চেনে।

তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে একটি মিছিল নিয়ে ফুল দেয়া আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার। আসলে আমাদের বড় মিছিল দেখে হয়তো আওয়ামী লীগ ঈর্ষান্বিত। কারণ, তাদের কাছে তো টাকা না দিয়ে কেউ যায় না।
সরকারকে অগণতান্ত্রিক উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই সরকারের ভবিষ্যতে কী হবে, কী পরিণতি হবে এটা আমরা আন্দাজ করতে পারি। দুনিয়াতে এমন অনেক সরকার ছিল। কিন্তু এক সময় না এক সময় তাদের সরে যেতে হয়েছে। আমরা আশা করি কিছু দিনের মধ্যে এই সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করতে পারবো, ইনশাল্লাহ।

 

সংবাদ সম্মেলনে দলটির সদস্য সচিব নূরুল হক নূর বলেন, তাদের কারণে শিক্ষাঙ্গনে ছাত্রলীগের একাধিপত্য কমে আসছে। ডাকসু নির্বাচনের পর তাদের নেতা-কর্মীরা সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অবস্থান করছে। ছাত্রদলও তাদের উত্থানের পরে ক্যাম্পাসগুলোতে কার্যক্রম চালাতে পারছে। এ কারণে তাদের ওপর হামলা হচ্ছে।
নুর বলেন, বিএনপিকে তো সরকার নানাভাবে নাজেহাল করে রেখেছে। সরকার তাদের নানাভাবে চাপে রাখছে এবং গলায় রশি পরিয়ে দিয়েছে। কিন্তু আমাদের এখনও কোনো চাপে ফেলতে পারেনি। সরকার দেখছে যে সবাই মোটামোটি তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও আমরা নিয়ন্ত্রণের বাইরে। যে কারণে এখন আমাদের প্রধান টার্গেট করেছে।

 

এক প্রশ্নের জবাবে নূর বলেন, এটি একটি জাতীয় কর্মসূচি। মাওলানা ভাসানীর জন্মদিন ও মৃত্যু দিনে ওখানকার (টাঙ্গাইল) লোকাল প্রশাসন একটি নিরাপত্তা তৈরি করে। আওয়ামী লীগসহ বাংলাদেশে সমস্ত রাজনৈতিক দল ওখানে শ্রদ্ধা নিবেদন করে। এমন দিবসে গেলে তো নতুন করে নিরাপত্তার আবেদন করবো না। আর এটাতো একটা ন্যাশনাল প্রোগ্রাম ছিল। যে কারণে আমরা জানাইনি।

 

হামলা ঘটনায় এখনও কোন মামলা করেননি বলে জানান নুর। বলেন, মামলা করলে আমাদের নেতা-কর্মীদের জড়াবে। কিংবা ওদের নামে একটা মামলা করলে আমাদের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে ৩টা মামলা করবে। এ জন্য আমরা আইনের দারস্থ হয়ে খুব একটা সুবিধা করতে পারব বলে মনে হয় না।
আপনার মতামত দিন

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com