মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:২৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
হরিমোহন স্কলে পদোন্নতিপ্রাপ্তদ শিক্ষকদের সংবর্ধনা ওমিক্রন ঠেকাতে শিবগঞ্জে মাস্ক বিতরণ শিবগঞ্জে বীরমুক্তিযোদ্ধা সনু লাঞ্ছিতের ঘটনায় তদন্ত শুরু শিবগঞ্জে বিভিন্ন ভাতা ভোগীদের আয় বৃদ্ধিমূলক ব্ল্যাকবেঙ্গল ছাগল ও দেশি মুরগি বিষয়ক প্রশিক্ষণ সিভিল সার্ভিসে ১০বছর পদার্পণ, শিবগঞ্জ অফিসার্স ক্লাবের শুভেচ্ছা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শেষ হচ্ছে আজ সিলেট সানরাইজার্সে খেলবেন সিমন্স নিউজিল্যান্ড মিশন শেষে দেশে ফিরলেন মুমিনুলরা শিবগঞ্জে সাদ্য যোগদানকৃত ডিসি’র গুচ্ছগ্রাম পরিদর্শন ও কম্বল বিতরণ নবীগঞ্জে প্রশাসনের উদ্যােগে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন প্রকল্পের জন্য সরকারি খাস জমি উদ্ধার
ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়াই রাজধানীতে ব্যবসা করছে ‘আমেরিকান বার্গার

ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়াই রাজধানীতে ব্যবসা করছে ‘আমেরিকান বার্গার

অল নিউজ ডেস্ক :
রাজধানীর অভিজাত ধানমন্ডি এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসা করছে ফাস্ট ফুড শপ আমেরিকান বার্গার। তবে প্রতিষ্ঠানটি কোন ভ্যাট নিবন্ধন নেয়নি। কিন্তু ক্রেতাদের কাছ থেকে পয়েন্ট অব সেল (পস) মেশিনে নিয়ম করে ভ্যাট নেন। আর সেই ভ্যাটের টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা না দিয়ে করে আত্মসাৎ। অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটিতে অভিযান পরিচালনা করেছে মূসক নিরীক্ষা, গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর (ভ্যাট গোয়েন্দা)। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) ভ্যাট গোয়েন্দার একটি দল এই অভিযান পরিচালনা করে অভিযোগের সত্যতা পান। ভ্যাট গোয়েন্দার মহাপরিচালক ড. মইনুল খান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


মহাপরিচালক জানান, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন ক্রেতা আমেরিকান বার্গারে খাবার খেয়ে বিল দিতে গিয়ে ভ্যাটের চালান চান। কিন্তু প্রতিষ্ঠান ভ্যাটের চালান না দেয়ায় ক্রেতা ভ্যাট গোয়েন্দা অধিদপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেন। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে সংস্থার সহকারী পরিচালক মো. হারুন অর রশিদ এর নেতৃত্বে ভ্যাট গোয়েন্দার একটি দল বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটায় ধানমন্ডিতে আমেরিকান বার্গার (বাসা-১৫, রোড-৭, ধানমন্ডি, ঢাকা-১২০৯) নামক ফাস্ট ফুডের দোকানে অভিযান পরিচালনা করেন।

অভিযানে গোয়েন্দার দল দেখতে পায়, প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন যাবৎ ব্যবসা পরিচালনা করলেও ১৩ ডিজিটের ভ্যাট নিবন্ধন গ্রহণ করেনি। গোয়েন্দার দল রেস্টুরেন্টের পস মেশিন থেকে বিক্রয় তথ্য জব্দ করেছেন। হিসাবে দেখা গেছে, প্রতিষ্ঠানটি চলতি বছরের ২৩ আগস্ট থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত মাত্র ৪ মাসে প্রায় ১৮ লাখ ৩৫ হাজার টাকার বেশি বিক্রয় করেছে। যার উপর সরকার নির্ধারিত হারে ভ্যাট প্রযোজ্য থাকলেও প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ কোন প্রকার ভ্যাট প্রদান করেনি।


ভ্যাট আইন অনুসারে, যে কোন ভ্যাটযোগ্য ব্যবসা শুরুর পূর্বেই যথাযথভাবে ভ্যাট নিবন্ধন গ্রহণ এবং নির্ধারিত ৬.৩ ফরমে ক্রেতাদের ভ্যাট চালান ইস্যু করতে হয়। একইসঙ্গে, মাস শেষে পরবর্তী মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে স্থানীয় ভ্যাট অফিসে রিটার্নের মাধ্যমে তাদের নিকট থেকে সংগৃহীত ভ্যাট সরকারি কোষাগারে জমা দেয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। আমেরিকান বার্গার আইনের এই বিধান ভঙ্গ করে ব্যবসা পরিচালনা করেছে মর্মে ভ্যাট গোয়েন্দার দল দেখতে পান। প্রতিষ্ঠানটির সার্বিক কার্যক্রম অনুসন্ধানের স্বার্থে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকে হিসাব বিবরণী তলব করা হয়েছে। যাচাই-বাছাই শেষে প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ অন্যান্য আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে। একইসঙ্গে সংশ্লিষ্ট ঢাকা পশ্চিম ভ্যাট কমিশনারেটকে দ্রুত এই ফাস্ট ফুডকে নিবন্ধনের আওতায় এনে যথাযথ ভ্যাট আদায়ের ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ড. মইনুল খান।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com