মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৪০ অপরাহ্ন

ভোটের দুদিন পর পুকুরে পাড়ে পাওয়া গেল সিলমারা ব্যালট

ভোটের দুদিন পর পুকুরে পাড়ে পাওয়া গেল সিলমারা ব্যালট

নিজস্ব প্রতিনিধি :
রাজশাহীতে ইউপি নির্বাচনের দুইদিন পর একটি ভোটকেন্দ্রের পাশের পুকুরে পাওয়া গেছে দুই শতাধিক সিলমারা ব্যালট পেপার। মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) চারঘাট উপজেলার শলুয়া ইউনিয়নের বামনদিঘী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশে একটি পুকুরে এগুলো পাওয়া যায়। ‘

 

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শলুয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কেন্দ্র বামনদিঘী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। ওই ওয়ার্ডে সাতজন ইউপি মেম্বার পদে নির্বাচনে অংশ নেন। রোববার (২৬ ডিসেম্বর) এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনের দিন ভোট গণনার শেষ পর্যায়ে কয়েকজন প্রার্থীর বিক্ষুব্ধ কর্মীরা নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকারীদের অবরুদ্ধ করে ভোটে অনিয়মের অভিযোগ করেন। তারা এক পর্যায়ে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কেন্দ্রের ভেতরে প্রবেশ করে ব্যালট পেপার ছিনতাই করেন। শেষ পর্যন্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে রাত ১২টার দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যালট পেপার উদ্ধার করে নির্বাচন কার্যালয় জমা দেয়। এরপর ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

 

নির্বাচনের দুদিন পর আজ মঙ্গলবার ওই কেন্দ্রের পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে বিপুলসংখ্যক সিলমারা ব্যালট পেপার পাওয়া যায়। এতে স্থানীয় ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক গুঞ্জন শুরু হয়েছে।

 

স্থানীয় বামনদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আসিফুজ্জামান বাধন বলেন, তিনি দুপুরে মাঠে ঘাস কাটতে যাচ্ছিলেন। এসময় পুকুরে চার থেকে পাঁচটি ব্যালট পেপার ভাসতে দেখেন। পরে পুকুরের কিনারে বামনদিঘী কেন্দ্রের নাম লেখা একটি কাগজের প্যাকেট দেখতে পান। তাৎক্ষণিকভাবে তিনি বিষয়টি স্থানীয়দের জানালে লোকজন এসে কাগজের প্যাকেট থেকে প্রায় দুই শতাধিক সিলমারা ব্যালট পেপার উদ্ধার করেন।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চারঘাট উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রবিউল আলম বলেন, ভোটের দিন সংশ্লিষ্ট প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ভোট গণনা শেষে সিলগালা অবস্থায় ব্যালট পেপার নির্বাচন কার্যালয়ে জমা দেন। আমাদের গুনে নেওয়ার সুযোগ নেই। এ অবস্থায় কোথাও ব্যালট পেপার পাওয়া গেলে উদ্ধার করে বিষয়টা তদন্ত করে দেখা হবে।

 

ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, ‘আমি গণনা শেষে সব ব্যালট পেপার জমা দিয়েছি। কোথাও ব্যালট পেপার উদ্ধার হয়েছে কি না তা আমার জানা নেই।

 

শলুয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নৌকার প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ। তিন ভোট পেয়েছেন ৯ হাজার ৮৯৮ ভোট। তার প্রতিন্দ্বন্দী পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৪০১ ভোট। ওই ইউনিয়নে নয়টি ওয়ার্ড রয়েছে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com