রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ১২:২২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মাইক্রোবাস- ট্রাক সংঘর্ষে একই পরিবারের পাঁচজনের মৃত্যু সাপাহারে গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর হস্তান্তরের শুভ উদ্বোধন ওসমানীনগরে নিজ বাসা থেকে শিক্ষিকা-গৃহকর্মীর মরদেহ উদ্ধার যানজট এড়াতে গাজীপুর-ঢাকা ট্রেন চলাচল শুরু যাদুকাটায় নৌকা ডুবির ঘটনায় নিহতের পরিবারের পাঁশে ইউএনও কোপা আমেরিকা, উরুগুয়ের বিপক্ষে জয় পেল আর্জেন্টিনা হিলি  চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছেন ২৫৯ বাংলাদেশী, করোনায় আক্রান্ত ৯ জাফলং সীমান্ত এলাকা থেকে নিখোঁজ সেই তিন মাদ্রাসা শিক্ষার্থী উদ্ধার ভারত থেকে অবৈধ প্রবেশের অপরাধে ১৯ জন গ্রেপ্তার দেশে লকডাউন চলছে সবকিছু খোলা, কিন্তু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ: মান্না
করোনায় একের পর এক অধ্যাপকের মৃত্যু, আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে আতঙ্ক

করোনায় একের পর এক অধ্যাপকের মৃত্যু, আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে আতঙ্ক

নিউজ ডেস্ক : জনশূন্য রাস্তা, জনশূন্য ক্যাম্পাস, আতঙ্ক বিরাজ করছে আলিগড় মুললিম বিশ্ববিদ্যালয়ে। তবে ভিড় ও গলার আওয়াজ একমাত্র শোনা যাবে কবরস্থানে। প্রকৃত পক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কবরস্থানে আর জায়গা নেই। তাই করোনায় মৃতদের সমাধিস্থ করতে পুরনো কবরগুলো খনন করা হচ্ছে। গত কয়েক সপ্তাহে কমপক্ষে ৩৫ জন বর্তমান ও অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক কোভিড ও কোভিডের মতো উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা নাদিম বলেন, আমি কয়েক দশক ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের এ রকম অবস্থা দেখিনি। আগে আমি প্রতিদিন নমাজ পড়তে আসতাম। তবে এখন সপ্তাহে একবার আসি। লোকজন ভীত। প্রতিদিন আট থেকে ১০টি কবর দেয়া হয়। এক সাথে নমাজ পড়া হয়।

গত বছরের তুলনায় এ বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেক প্রবীণ অধ্যাপক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গত কয়েক সপ্তাহে কোভিডের কারণে মৃত্যুও বেশি।

প্রক্টর অধ্যাপক মহম্মদ ওয়াসিম আলি বলেন, গত ২০ দিনে আমরা আমাদের ১৬ জন সহকর্মীকে হারিয়েছি। মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান, আইন বিভাগের ডিন-সহ আরো বিশিষ্ট শিক্ষককে হারিয়েছি। আমাদের মধ্যে ভয় ও অস্থিরতা কাজ করছে।

আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি নির্ধারিত টিকাকেন্দ্র রয়েছে। টিকার ট্রায়ালের ক্ষেত্রে ভূমিকার জন্য প্রশংসা করা হয়েছিল এই কেন্দ্রের। ভিসি টিকা নিতে অধ্যাপকদের কাছে আবেদন জানিয়েছিলেন। তবে অধ্যাপক ওয়াসিম জানিয়েছেন, প্রয়াত অধ্যাপকদের মধ্যে কোভিভ টিকা নিয়েছিলেন এমন কমই ছিলেন। প্রকৃতপক্ষে যে সকল অধ্যাপক টিকা নিয়েছিলেন তাদের মৃদু সংক্রমণ হয়েছিল। তারা দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com