রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৬ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে কেচ কার্ড কিনলেই ফ্রিজ-সোনার দুল, দুই ভাইসহ ৫ প্রতারক গ্রেফতার

ঈশ্বরদীতে কেচ কার্ড কিনলেই ফ্রিজ-সোনার দুল, দুই ভাইসহ ৫ প্রতারক গ্রেফতার

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি :

১০০ টাকার কেচ কার্ড কিনে ঘুসলেই মাত্র ১৬শ টাকার বিনিময়ে ফ্রি, ৩২ এলএডি টেলিভিশন, ৪ আনা ওজনের সোনার দুল, সেলাই মেশিনসহ মুল্যবান সব পুরুষ্কার পাওয়া যাবে। এই রকম অভিনব প্রতারণার দায়ে দুই ভাইসহ ৫ প্রতারককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ (শনিবার) দুপুরে পাবনা আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। আটকৃকত প্রতারকরা হলেন, গোপালগঞ্জ জেলার চরবরফপুর গ্রামের মৃত কাজী জালাল উদ্দিনের দুই ছেলে কাজী লিটন হোসেন (৪০) ও কাজী কাদের (২৫), একই জেলার খালিয়া গ্রামের মোস্তফা শেখের ছেলে সাফায়েত শেখ (২১), নড়াইল জেলার লোহাগড়া থানার ইটনা গ্রামের মৃত কামসু শেখের ছেলে বিপুল শেখ (৩২), একই জেলার চাপিলিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর সরদারের ছেলে বুলবুল সরদার(২৪)।

ঈশ্বরদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সৌরভ কুমার চন্দন জানান, এই প্রতারকরা দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে কেচ কার্ড বিক্রয়ের মাধ্যমে মাত্র ১৬শ টাকায় লোভনীয় সব পুরুষ্কারের কথা বলে গ্রামের সহজ সরল মহিলাদের সঙ্গে প্রতারণা চালিয়ে আসছিলো। সম্প্রতি চক্রটি পাবনা সদর থানার সাত মাইল গাতি এলাকায় একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে অফিস বানিয়ে গ্রামে গ্রামে গিয়ে প্রতারণা করে আসছিলো। তারা ঢাকার কাজী এন্টারপ্রাইজের নামের একটি প্রতিষ্ঠানের নামে এই কেচ কার্ড তৈরী করেছিলো। যার রেজিষ্ট্রেশন নম্বরও সঠিক না।

 

উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন জায়গায় এভাবে কেচ কার্ড বিক্রয়ের মাধ্যমে প্রতারণা করার বিষয়টি ফাঁস হলে জনগণ তাদের আটক করে। তাদের নিকট থাকা কেচ কার্ড ঘষে কোনটিতে ফ্রিজ, সোনার দুল, টেলিভিশন, সেলাইমেশিনসহ দামী জিনিসের নাম না থাকায় তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে এলাকাবাসী। তাদের প্রতারণা ধরা পড়লে এলাকাবাসী প্রতারকদের পুলিশে সোপর্দ করে।

 

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, আটককৃতরা প্রত্যেকে যোগসাজছে বিভিন্ন এলাকায় প্রতারণা করে আসছিলো। তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা দায়ের করে পাবনা আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com