সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০:২১ অপরাহ্ন

ভারি বর্ষণে শিবগঞ্জে কানসাটে রাস্তার বেহাল দশা, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে পথচারিরা

ভারি বর্ষণে শিবগঞ্জে কানসাটে রাস্তার বেহাল দশা, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে পথচারিরা

মোহা: সফিকুল ইসলাম, শিবগঞ্জ(চাঁপাইনবাবগঞ্জ) সংবাদদাতা:
গত শনিবার প্রবল ভারি বর্ষণে শিবগঞ্জ উপজেলার কানসাটে মিলিক-বাগান বাড়ি আঞ্চলিক রাস্তার প্রায় ৩০ফিট প্রস্থ, ৫০ফিট দীর্ঘ এবং ৫/৬ ফিট গর্তে পরিণত হয়ে রাস্তার বেহাল দশা হওয়ায় জনদূর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। একই কারণে বাগান বাড়ি ঈদগাহের মাটি কেটে যাওয়ায় ঈদগাহ সংলগ্ন কয়েকটি বাড়ি ঝুঁকি মধ্যে পড়েছে স্থানীয়রা জানায়। সরজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে এ তথ্য পাওয়া গেছে।স্থানীয়দের আশঙ্কা যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে।

 

স্থানীয়রা জানায়, গত বছরও একইভাবে ঈদগাহের ভারী বর্ষনে ঈদগাহের মাটি কেটে গত হয়েছিল যা এবার আরো বেশী গর্ত হয়েছে। ঈদগাহের মাটি কাটতে থাকলেও ঈদগাহ কমিটি ড্রেনেজ ব্যবস্থার সংস্কারের কোনো উদ্যোগে গ্রহণ না করে বরং ঈদগাহ কমিটি সরকারী ড্রেন বন্ধ করে দিয়েছিলো ।স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে কানসাট ইউপি চেয়ারম্যান আলোচনার জন্য ঈদগাহ কমিটিকে ডাকলেও তারা সাড়া দেয়নি এমনকি ড্রেন মেরামতের ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান সহযোগিত করতে চাইলেও সহযোগিত না নিয়ে বরং পানির নিস্কাশন বন্ধ করে দেয়।

এদিকে, সরেজমিনে দেখা গেছে, রাস্তার বেহাল দশা হওয়ায় এবং পথাচারিদের নির্বিঘেœ চলাচলের জন্য লাল পতাকা দিয়ে সর্তক সংকেত টাঙিয়ে দেন। সেই সাথে বিভিন্ন যানবহন চালকসহ সাধারণ পথাচারিদের সর্তক সংকেত দিতে রাস্তায় দাঁড়িয়ে কথোপকথন করছেন।এদিকে, কানসাট মিলিক বাগান বাগান বাড়ি ঈদগাহ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি ও সদস্য মজবুল আক্তার ভদু জানান, ড্রেনেজ সংস্কারের জন্য এক বছর আগে চেয়ারম্যানের কাছে আবেদন করা হলেও তিনি সংস্কারের কোন উদ্যোগ গ্রহণ করিনি। ফলে আমাদের ঈদগাহের অনেক বড় ক্ষতি হয়ে গেছে। তবে, চেয়ারম্যান সাহেব আমাদের বলেছিলেন বাজেট পেলে সংস্কার করে দেয়ার আশ্বাস দেন।

 

এব্যাপারে কানসাট ইউপি চেয়ারম্যান মো. বেনাউল ইসলাম বলেন, স্থানীয় ও ঈদগাহ কমিটির সদস্যদের সহযোগিতা করতে চেয়েছিলাম যে, ড্রেনের বড় পাইপ দিয়ে সংস্কার করে দিবো। কিন্তু ঈদগাহ কমিটির লোকজন আমার সাথে যোগাযোগ করেনি। যদি তাঁরা না আসে তাহলে আমি কিভাবে উদ্যোগ নিবো? এছাড়া রাস্তাটি এলজিইডি কর্তপক্ষের। রাস্তা মেরামতের জন্য এলজিইডি কর্তকপক্ষের সাথে আলোচনা করে রাস্তা মেরামতের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা এলজিইডির কর্মকর্তা প্রকৌশলী হারুন অর রশিদ বলেন, বৃষ্টিতে রাস্তা ভেঙে পড়ার বিষয়টি জানা ছিলো না আমার। আপনার কাছ থেকে জানলাম। আমি আগামীকাল সোমবার সকালেই পরিদর্শনে যাবো এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো ইনশাআল্লাহ।

 

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com