সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:২৬ অপরাহ্ন

বাগমারায় করোনার টিকা নিলেন ২৭ হাজার মানুষ

বাগমারায় করোনার টিকা নিলেন ২৭ হাজার মানুষ

মো : সামিউল ইসলাম, রাজশাহী প্রতিনিধি :

রাজশাহীর বাগমারায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম জন্মদিনে করোনা ভাইরাসের টিকা নিলেন ২৭ হাজার ব্যক্তি। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষ্যে গণটিকা কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা ১৬টি ইউনিয়ন ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক যোগে চলে গণটিকা কার্যক্রম। এতে প্রাথমিক ভাবে ২৪ হাজার ব্যক্তির শরীরে করোনা টিকার প্রথম ডোজ দেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে ২৭ হাজার ব্যক্তির শরীরে। গণটিকা কার্যক্রমে লোকজনের উপস্থিতিও ছিলে অনেক। লাইনে দাঁড়িয়ে নিয়ম মেনে টিকা নিয়েছেন লোকজন। গণটিকা কার্যক্রমে সকাল থেকেই লোকজন আসে টিকা নিতে। অনলাইনে আবেদনকারীরাই এসেছেন গণটিকা কার্যক্রমে টিকা নিতে।

 

 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই টেকনিশিয়ান গোলাম মোস্তফা জানান, অনলাইনে আবেদন বিহীন কাউকে টিকা দেয়া হচ্ছে না। টিকা প্রদানের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করেছে ১ লাখ ৮ হাজারের অধিক মানুষ। এরই মধ্যে দুই ডোজই সম্পন্ন হয়েছে প্রায় ৩০ হাজারের অধিক ব্যক্তির। সেই সাথে প্রথম ডোজের টিকা প্রদান করা হয়েছে ৭৫ হাজারের অধিক। গণটিকা কার্যক্রম ছাড়াও প্রতিদিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৪টি বুথে সিনোফার্ম এর টিকা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ইতোপূর্বে গণটিকা কার্যক্রমে প্রথম ডোজ ১১ হাজার জনকে টিকা দেয়া হলেও দ্বিতীয় ডোজ দেয়া হয়েছিল ১০ হাজার জনের শরীরে। অন্যরা পরবর্তীতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে টিকা নিচ্ছেন বলেন জানাগেছে। অনলাইনে আবেদন করলেও তারিখ অনুযায়ী আবেদনকারীর মোবাইলে টিকার তারিখ পাঠানো হচ্ছে। সে মোতাবেক লোকজন টিকা নিতে আসছেন।

মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণের শুরুতে আতংক বিরাজ করেছে পৃথিবী জুড়ে। সে সময় করোনা ভাইরাসের কবল থেকে রক্ষার ছিল না কোন উপায় বা প্রতিষেধক। করোনার শুরু থেকে ভীতি আর আতংক দেখা গেছে লোকজনের মাঝে। টিকা প্রদানের শুরুর দিকে সম্মুখ সারির ব্যক্তিদের টিকা দেয়া হলেও বর্তমানে দেশব্যাপি গণহারে টিকা প্রদান করা হচ্ছে। গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষও এখন টিকা নিচ্ছেন নিজ আগ্রহে। টিকার কার্যকারীতার সুফল পাওয়ায় দীর্ঘ লাইনে ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে লোকজন টিকা গ্রহণ করছেন। রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র। সকাল থেকেই টিকা নেয়ার জন্য এসে বসে থাকেন লোকজন। প্রতিদিন গড়ে দেড় হাজারের অধিক ব্যক্তিকে করোনা প্রতিরোধে টিকা প্রদান করা হচ্ছে।

 

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ গোলাম রাব্বানী বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষায় শুরু থেকে উপজেলার লোকজন শান্তিপূর্ণ ভাবে টিকা গ্রহণ করে চলেছেন। প্রতিদিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। টিকার সরবরাহ ঠিক থাকলে যারা আবেদন করেছেন তাদেরকে দ্রæত সময়ের মধ্যে টিকা দেয়া সম্ভব হবে। গ্রামের লোকজন আগের চেয়ে অনেক সচেতন হওয়ার কারনে আবেদনের সংখ্যা বাড়ছে। ইতোপূর্বে যে সকল ব্যক্তি করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন তারা সুস্থ আছেন।

 

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com