শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
হযরত আল্লামা মুফতি মুজাহিদ উদ্দীন চৌধুরী দুবাগী  (রহ.) হুজুরের অবদান কখনো ভুলার নয়। ভোলাহাটে ইউনিয়ন পর্যায়ে এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা। ভোলাহাটে গ্রামবাসির হাতে ভূয়া র‌্যাব, পুলিশে সোর্পদ। প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও চমকপ্রদ পদ্ধতিতে ইভিএম এর প্রচারণায় মাঠে নেমেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো:দেলোয়ার হোসেন গোবিন্দগঞ্জে আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক মোকাদ্দেস আলী বাদু এর শীতার্তদের মাঝে উষ্ণ উপহার রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী আগমন উপলক্ষে তাঁতী লীগের প্রচার মিছিল শিবগঞ্জে নার্স লাঞ্ছনার ঘটনায় সাবেক যুবলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ শিবগঞ্জে তথ্য আপার উদ্যোগে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত দানবীর আলহাজ্ব বশির আহমদের পিতার মৃত্যু বার্ষিকীতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত। আগুন সন্ত্রাসকে পেছনে ফেলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী
ভাইরাল হতেই শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে টিকটক ভিডিও বানাল কিশোর গ্যাং

ভাইরাল হতেই শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে টিকটক ভিডিও বানাল কিশোর গ্যাং

নিউজ ডেস্ক :
রাজধানীর মিরপুরের পল্লবীতে কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় মিঠু নামে ১০ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে গুরুতর আহত হয়েছে।

শনিবার মিরপুর ১২ নম্বর ডি ব্লক ঈদগাহ মাঠে ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মিঠুকে পিটিয়ে এ ঘটনার একটি টিকটক ভিডিও বানিয়ে নিজেদের মেসেঞ্জার গ্রুপে শেয়ার করেছে ওই কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা।

টিকটক ভিডিওর ঘটনাটি জানাজানি হলে ওই কিশোর গ্যাংয়ের লিডার হাবিব শনিবার সন্ধ্যার দিকে মিঠুকে তার বাসার সামনে থেকে তুলে নিয়ে আসে। তারা মিঠুকে মিরপুর ১২ নম্বরের একটি স্কুলের ভিতর আটক করে দ্বিতীয় দফায় মারপিট করে। এ ঘটনায় মিঠুর বড় ভাই মামুন ৯৯৯ এ ফোন দিলে পুলিশ এসে মিঠুকে উদ্ধার করে।

আরও জানা গেছে, শনিবার দুপুরের দিকে মিঠুকে ফোন করে মিরপুর ১২ নম্বরের ডি ব্লকের মাঠে আসতে বলে কিশোর গ্যাং সদস্য তানভীর। মিঠু মাঠে এসে দেখে তানভীরের সঙ্গে ওমরসহ আরও কয়েকজন অপরিচিত কিশোর রয়েছে। এরপর তানভীর ও ওমরের সঙ্গে মিঠুর সিনিয়র ও জুনিয়র নিয়ে তর্কাতর্কি হয়। এক পর্যায়ে আগ থেকে ওৎ পেতে থাকা তানভীর, ওমরসহ ১০-১২ জন কিশোর মিঠুকে একা পেয়ে পিটাতে থাকে। মোবাইলে এ ঘটনার ভিডিও ধারন করে তানভীর ও ওমরের সঙ্গে থাকা গ্যাং সদস্যরা। এরপর টিকটক ভিডিও বানিয়ে তা নিজেদের ম্যাসেঞ্জার গ্রুপে শেয়ার করে ওই কিশোর গ্যাং সদস্যরা।

এ দিকে টিকটক ভিডিওর ঘটনায় মিঠুর পরিবার মামলা করতে পারে কিশোর গ্যাং লিডার হাবিবের কানে এই খবর পৌঁছালে তিনি মিঠুকে তার গ্যাং সদস্যদের সহায়তায় তুলে নিয়ে আসে। এরপর মিরপুর ১২ নম্বরের বাংলাদেশ আদর্শ শিক্ষা নিকেতন স্কুলে আটকিয়ে মারপিট করে। মিঠুর ভাই মামুন ৯৯৯ এ ফোন দিলে পুলিশ মিঠুকে আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন।

আহত মিঠু বলেন, আমাকে যখন মারছিল তখন তাদের একজন ভিডিও করছিল। ভিডিও করার সময় একজনকে বলতে শুনেছি এ ঘটনার টিকটক ভিডিও বানিয়ে তারা ভাইরাল হতে চায়। তিনি বলেন, ওমর এবং তানভীর হাবিরের আন্ডারে কাজ করে। হাবিব কিশোর গ্যাংয়ে ৪০-৫০ জন সদস্য রয়েছে।

এ দিকে এ ঘটনার টিকটক ভিডিটি এ প্রতিবেদকের হাতে এসেছে। ভিডিওতে দেখা যায়, মাঠের মধ্যে ৫-৬ জন কিশোর মিঠুকে ঘিরে রেখে অনবরত কিল ঘুষি মারছে। এক পর্যায়ে ওই কিশোরারা তাকে (মিঠু) পেটাতে পেটাতে মাটিতে ফেলে দেয়।

 

পল্লবী থানার এসআই জিয়া বলেন, ৯৯৯ এ ফোন দিলে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। পুলিশের উপস্থিতি টের হামলাকারী হাবিবসহ অন্যরা পালিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় যারা জড়িত তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com