বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত : চট্টগ্রামে এক শিক্ষকের ৮ বছরের কারাদণ্ড

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত : চট্টগ্রামে এক শিক্ষকের ৮ বছরের কারাদণ্ড

নিউজ ডেস্ক :
‘ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে’ ফেসুবকে পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় এক শিক্ষককে ৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত।

সোমবার (৪ জুলাই) চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ জহিরুল কবির এ রায় দেন। ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মেজবাহ উদ্দীন চৌধুরী।

তিনি বলেন, দেবব্রত দাস প্রকাশ দেবু দাস নামের একজনকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন-২০০৬ (সংশোধিত-১৩) এর ৫৭ (২) ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে ৮ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। একই রায়ে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার পর আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দেবব্রত দাস প্রকাশ দেবু দাসের বাড়ি নোয়াখালী জেলার হাতিয়া থানায়। তিনি চৌমুহনী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন ।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১ নভেম্বর হাতিয়া থানায় এসআই হুমায়ুন কবির বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। ২০১৮ সালের ১০ জুন তৎকালীন দেশের একমাত্র ঢাকায় সাইবার ট্রাইব্যুনাল বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ

জগলুল হোসেনের আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়। পরে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলাটি হস্তান্তর করা হয়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন-২০০৬ (সংশোধিত-১৩) এর ৫৭ (২) ধারায় ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি দেব ব্রত দাস আদালতে দোষ স্বীকার করেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছয়জন ও আসামি পক্ষে দুজন সাফাই সাক্ষী দিয়েছেন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com