বুধবার, ০৪ অক্টোবর ২০২৩, ০৭:০৫ অপরাহ্ন

শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ

শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক :
রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ উঠেছে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে। দেশটির পরবর্তী সেনাপ্রধান কে হবে তা নিয়ে বড় ভাই নওয়াজ শরিফের সঙ্গে আলোচনা করায় তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠেছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস’র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পাঞ্জাব প্রদেশের পার্লামেন্টারি অ্যাফেয়ার্স সম্পর্কিত মন্ত্রী বাশারাত রাজা গত সোমবার প্রাদেশিক আইনসভার অধিবেশনে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি রেজুল্যুশন উত্থাপন করেন। সেখানে বলা হয়, পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর প্রধান হিসেবে কোন সেনা কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেওয়া হবে তা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ তার বড়ভাই নওয়াজ শরিফের সঙ্গে সে সম্পর্কে আলোচনা ও শলা-পরামর্শ করেছেন। দুই দিন আগে লন্ডনে নওয়াজ-শাহবাজের এই আলোচনা হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। এই রেজ্যুলেশনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন পাঞ্জাবের আইনসভার বেশিরভাগ সদস্য।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় যোগ দিতে কয়েক দিন আগে যুক্তরাজ্যে গিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। সেখানেই বড় ভাই নওয়াজ শরিফের সঙ্গে তিনি সাক্ষাৎ করেন বলে জানা গেছে।
সম্প্রতি পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী খুররামও জানিয়েছেন, পাকিস্তানের পরবর্তী সেনা প্রধান কে হবে তা নিয়ে বড় ভাই নওয়াজ শরিফের সঙ্গে আলোচনা করেছেন শাহবাজ শরিফ। এই বক্তব্যের পর পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের বিরুদ্ধে ব্যবহার নেওয়ার দাবি জানিয়েছে ইমরান খানের দল পিটিআই।

পাকিস্তানের তিন বারের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত ও আদালতের দণ্ডপ্রাপ্ত। দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তিনি জাতীয় রাজনীতি থেকে নির্বাসিত এবং আদালতের দণ্ড এড়াতে বর্তমানে বিদেশে পলাতকের জীবনযাপন করছেন।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের বর্তমান সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া চলতি বছরের নভেম্বরের শেষের দিকে অবসরে যাচ্ছেন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com