শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
উপজেলা নির্বাচনে তরুণ প্রজন্মের অহংকার ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ইব্রাহিম আপনাদের নিয়েই এগিয়ে যেতে চাই : ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী উজ্জল হোসেন সাংবাদিক দেওয়ান রানা’র মায়ের ২য় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত   সদরঘাটে মোবাইল কোর্টের অভিযান: হ্যান্ড মাইক জব্দ চরফ্যাশনে সড়ক নির্মাণ করে দিলেন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজিম সিকাদার সদরঘাটে মোবাইল কোর্টের অভিযান: হ্যান্ড মাইক জব্দ দারুসসালামে টি আই সার্জেন্ট এ এস আই কন্সটেবল পেলেন ভালো কাজের পুরস্কার মদনে ওয়াস প্রোগ্রামের দ্বিতীয় ছাদ ঢালাই কাজে অনিয়ম রাবার ড্যামের অপব্যবহার ফলে বোরো ধান সহ বাড়ি ঘর ভাঙনের মুখে সরিষাবাড়ীতে ৬৭০ লিটার মদ উদ্ধার গ্রেফতার ১
চাঁপাইনবাবগঞ্জে চলছে পরিবহন ধর্মঘট

চাঁপাইনবাবগঞ্জে চলছে পরিবহন ধর্মঘট

অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট চলছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে।  বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ১০ দফা দাবিতে ধর্মঘট শুরু করেছে পরিবহন মালিকরা।

গতকাল বুধবার বিকেল পর্যন্ত দূরপাল্লার বাস সব ছেড়ে গেলেও যাত্রীদের নিয়ে আর ফেরেনি। এছাড়া, গতকাল বিকেলে থেকেই আন্তঃজেলা চলাচলকারী পরিবহনগুলোও বন্ধ হয়ে যায়। ফলে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক হামিদুর রহমান নান্নু এ তথ‌্য নিশ্চিত করেছেন।

এক যাত্রী বলেন, জরুরি কাজে রাজশাহী যাওয়া খুবই প্রয়োজন। কিন্তু ধর্মঘটের কারণে কোনো বাস রাস্তায় নামেনি। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করেও কোনো গণপরিবহনের দেখা মেলেনি। মাহিদ্রা ও অটোরিকশা চললেও বেশি ভাড়া দাবি করছেন চালকরা।

এদিকে, রাজশাহী বিভাগীয় গণসমাবেশে জনসমাগম ঠেকাতে সরকার কৌশল করে বাস ধর্মঘটের ব্যবস্থা করেছে বলে দাবি জেলার বিএনপি নেতাদের।

এ বিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর বিএনপির আহ্ববায়ক ওবায়দুর রহমান পাঠান বলেন, গণসমাবেশে নেতা-কর্মীদের আসা বাধাগ্রস্ত করতেই পরিকল্পিতভাবে বাস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সে জন্যে নেতা-কর্মীদের বিকল্পভাবে সমাবেশে আগেভাগে আসতে বলা হয়েছে। যেভাবে হোকে এ সমাবেশ সফল করা হবে ।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা বিএনপির আহ্বয়াক গোলাম জাকারিয়া বলেন,  রাজশাহীতে বিএনপির গণসমাবেশে জনস্রোত ঠেকাতে সরকার নানা  কৌশল করে পরিবহনের মালিকগ্রুপ দিয়ে ধর্মঘট শুরু করেছে। যা মানুষের জন্য খুব কষ্টকর। পদে পদে সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক হামিদুর রহমান নান্নু বলেন, ধর্মঘটের সঙ্গে বিএনপির সমাবেশের কোনো সম্পর্ক নেই। সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ সংশোধন, মহাসড়কে অবৈধযান বন্ধ ও জ্বালানি তেল এবং যন্ত্রাংশের অস্বাভাবিক মূল্য হ্রাসসহ ১০ দফা দাবি নিয়ে সরকারের সাথে আলোচনা করে আসছিল বাসমালিক-শ্রমিকেরা । এই দাবি না মানার কারণে বাধ্য হয়ে ধর্মঘটের ডাক দিতে হয়েছে বলে জানান এই পরিবহন নেতা।

উল্লেখ্য, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আন্তঃজেলা ও দেশের বিভিন্ন রুটে  প্রায় তিন শতাধিকের বেশি বাস  চলাচল করে থাকে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com