শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ার দখলে টিটো-মোশারুলের লড়াই, কার পক্ষ নেবে আ’লীগ আটপাড়ায় প্রধান শিক্ষকগণের মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত কয়রার বাগালী ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট সভা ঠাকুরগাঁওয়ের মাদারগঞ্জ গরু হাটে অতিরিক্ত খাজনা আদায়ের অভিযোগ ঠাকুরগাঁওয়ে রংপুর বিভাগীয় কমিশনার জাকির হোসেনের সাথে মতবিনিময় সভা প্রতারণার নতুন কৌশল ঠাকুরগাওয়ে মসজিদ, মাদ্রাসা সহ পাকাবসতবাড়ী নির্মাণের নামে কোটি কোটি টাকার প্রতারণা আটপাড়ায় খুদে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিলেন ইউএনও এম. সাজ্জাদুল অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল ঠাকুরগাঁওয়ে বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের এক্সরে মেশিনটি প্রায় ১৫ বছর ধরে নষ্ট হয়ে পড়ে রয়েছে, আর অন্যদিকে চিকিৎসক সংকট ফরিদপুরে গরমে বেড়েছে তাল শাঁসের বিক্রি
শিবগঞ্জে ফসলি জমির মাটি কাটার কাজ গুড়িয়ে দিল প্রশাসন

শিবগঞ্জে ফসলি জমির মাটি কাটার কাজ গুড়িয়ে দিল প্রশাসন

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:
শিবগঞ্জে ফসলি জমির মাটি কাটার কাজ গুড়িয়ে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার চর কানছিড়া এলাকায় এ অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এতে নেতৃত্ব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুল হায়াত। জানা গেছে- গত এক সপ্তাহ থেকে উপজেলার চর কানছিড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনে তিন ফসলি জমির কাটা কাজ শুরু করে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী সিন্ডিকেট। এতে হুমকিতে পড়ে পাশর্^বর্তী ফসলি জমি ও বিদ্যালয়টি। অতিরিক্ত মূল্যের প্রলোভন দেখিয়ে চর কানছিড়া গ্রামের মৃত তোবজুল হকের ছেলে সোনাদ্দি ও আট রশিয়া গ্রামের বিয়ন মন্ডলের ছেলে দুরুল হোদার নিকট ফসলি জমির মাটি ক্রয় করে ওই প্রভাবশালী সিন্ডিকেট। সিন্ডিকেটের মূলহোতা লক্ষীপুর গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে মো. নবী ও মৃত মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে ইসমাইল হোসেনের পরিচালনায় মাটি কাটার কাজ শুরুর খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসন তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে একটি ড্রেজার মেশিন অকেজো করে দেয়। পরবর্তীতে প্রশাসনের অভিযানকে বৃদ্ধগুলি দেখিয়ে আবারো রাতের আধারে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে অবাধে চলে ফসলি জমির মাটি কাটার কাজ। এতে যুক্ত হয় আরও দুটি ড্রেজার ও প্রায় ২০টি ট্রাক্টর। মাটিবাহী ট্রাক্টর পরিবহণের ফলে আট রশিয়া বেঁড়ি বাঁধ হতে বোগলাউড়ি পাকা সড়ক হুমকির মুখে পড়ে। ইতোমধ্যে সড়কের অনেক জায়গায় ফাটল ও ভাঙন দেখা দিয়েছে। শনিবার রাতে খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুল হায়াতের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের একটি দল অভিযান চালিয়ে ফসলি জমির মাটি কাটার কাজ গুড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ৮-১০টি ট্রাক্টর ও দুটি ড্রেজার মেশিন অকেজো করে দেয়া হয়। বন্ধ করা হয় মাটি কাটার কাজ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুল হায়াত জানান, ফসলি জমির মাটি কেটে পুকুর খনন বা মাটি বিক্রি করা যাবে না। এমনকি জমির শ্রেণি পরিবর্তন করা যাবে না। প্রশাসন এ বিষয়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। প্রতিনিয়ত অভিযান পরিচালনা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় রাতে বোগলাউড়ি-চর কানছিড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৮ থেকে ১০টি ট্রাক্টর ও দুটি ড্রেজার মেশিন অকেজো করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরণের অপরাধ করলে প্রশাসন কঠোর আইনানুগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com