শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
উপজেলা নির্বাচনে তরুণ প্রজন্মের অহংকার ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ইব্রাহিম আপনাদের নিয়েই এগিয়ে যেতে চাই : ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী উজ্জল হোসেন সাংবাদিক দেওয়ান রানা’র মায়ের ২য় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত   সদরঘাটে মোবাইল কোর্টের অভিযান: হ্যান্ড মাইক জব্দ চরফ্যাশনে সড়ক নির্মাণ করে দিলেন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজিম সিকাদার সদরঘাটে মোবাইল কোর্টের অভিযান: হ্যান্ড মাইক জব্দ দারুসসালামে টি আই সার্জেন্ট এ এস আই কন্সটেবল পেলেন ভালো কাজের পুরস্কার মদনে ওয়াস প্রোগ্রামের দ্বিতীয় ছাদ ঢালাই কাজে অনিয়ম রাবার ড্যামের অপব্যবহার ফলে বোরো ধান সহ বাড়ি ঘর ভাঙনের মুখে সরিষাবাড়ীতে ৬৭০ লিটার মদ উদ্ধার গ্রেফতার ১
এ সরকার দায়িত্ব-জ্ঞানহীন সরকার: মির্জা ফখরুল

এ সরকার দায়িত্ব-জ্ঞানহীন সরকার: মির্জা ফখরুল

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারকে দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে আখ্যায়িত করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, আমরা বরাবরই বলে এসেছি, এ সরকার দায়িত্ব-জ্ঞানহীন সরকার। তারা কোথাও কোনো জায়গাতেই দায়িত্ব পালন করতে পারছে না।

বুধবার (৫ এপ্রিল) বিকেলে মালিবাগে একটি হোটেলে বিএনপির যুগপৎ আন্দোলনের সঙ্গী ১২ দলীয় জোট আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের মন খুব ভারাক্রান্ত, গতকাল বঙ্গবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড হয়েছে এবং হাজার-হাজার মানুষ নিঃস্ব হয়ে গেছে। তাদের আহাজারি-কান্না এখন সারাদেশের মানুষকে ভারাকান্ত করে তুলেছে। সিদ্দিক বাজারে আগুনে ২২-২৩ জন মানুষ মারা গেছে। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া বঙ্গবাজারের আগুনে মানুষ মারা যায়নি। কিন্তু তারা সব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, আগুন লাগতেই পারে, কিন্তু দ্রুত আগুন নেভানোর জন্য ব্যবস্থা এ সরকার করতে পারে না। আগুন কেন লাগছে, তা বন্ধ করার জন্য সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা কী করছেন, আগুন লাগার প্রকৃত কারণ অনুসন্ধান করে এখন পর্যন্ত একটা তদন্ত রিপোর্ট তারা দিতে পারেনি।

ফখরুল বলেন, প্রতিদিনই সড়ক দুর্ঘটনায় অসংখ্য লোক মারা যাচ্ছে। এসব দুর্ঘটনা থেকে কীভাবে মানুষকে রক্ষা করা যায় তার কোনো পরিকল্পনা সরকারের কাছে নেই।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, গতকাল কুমিল্লায় বিএনপির ইফতার মাহফিলে পুলিশ হামলা চালায়। গ্রেপ্তার করা হয় ২৫ নেতাকর্মীকে। আজ সকালে নরসিংদী জেলা কমিটির সভায়ও পুলিশের উপস্থিতি আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। নাটোর, খুলনাসহ সারাদেশে বিএনপির সভায়, ইফতার মাহফিলে হামলা চালানো হচ্ছে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, সরকার এমনভাবে কথা বলে যেন, বাংলাদেশের মতো গণতন্ত্র আর কোথাও নেই। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের কথা বলে আর লাভ নেই। এবার রুখে দাঁড়াতে হবে। এরা জাতির বড় ক্ষতি করছে। গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে। ভোটাধিকার হরণ করেছে। বিচার বিভাগকে দলীয়করণ করেছে। এদের কাছে কেউ নিরাপদ নয়।

জাতীয় পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল হায়দারের সভাপতিত্বে ইফতারে আরও অংশ নেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইবরাহিম, জাতীয় দলের চেয়ারম্যান সৈয়দ এহসানুল হুদা, এলডিপির একাংশের মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ।

এছাড়া জেএসডি সভাপতি আ স ম রব, নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না, গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক নুর, এনপিপি চেয়ারম্যান ড.ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, জাগপার একাংশের সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, ইসলামী ঐক্যজোটের কারী আবু তাহের প্রমুখ ইফতার মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com