বৃহস্পতিবার, ১৭ Jun ২০২১, ১১:২৪ অপরাহ্ন

নেইমার-নাইকির সম্পর্কচ্ছেদের কারণ যৌন নিপীড়ন

নেইমার-নাইকির সম্পর্কচ্ছেদের কারণ যৌন নিপীড়ন

নিউজ ডেস্ক : নাইকির শুভেচ্ছা দূত ছিলেন নেইমার। গত বছরের আগস্টে তার সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করে যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বখ্যাত এই ক্রীড়াসরঞ্জাম প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান। কিন্তু কেন এমন ঘটনা ঘটেছিল। তখন সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায়নি। তখন জানা গিয়েছিল, নতুন চুক্তি নিয়ে সমঝোতায় পৌঁছাতে না পারায় দুই পক্ষ আলাদা হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ‘ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল’ জানায় নতুন তথ্য।

 

তাদের প্রতিবেদন অনুযায়ী, নেইমারের বিরুদ্ধে তদন্ত করছিল নাইকি। অভিযোগ ছিল, নাইকির এক কর্মীকে যৌন হয়রানি করেছেন তিনি। সেই ঘটনা জানেন—এমন লোকের উদ্ধৃতি দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৬ সালে নিউইয়র্কে নাইকির এক অনুষ্ঠানে এসেছিলেন নেইমার। তখন হোটেলে নিজের রুমে জোর করে সেই কর্মীকে যৌন হয়রানি করেন ব্রাজিলিয়ান এই তারকা।
নিজের বন্ধু-বান্ধব ও সহকর্মীদের সেই দিনের কথা জানিয়েছিলেন নাইকির সেই নারী কর্মী। ২০১৮ সালে এ নিয়ে অভিযোগ করেন তিনি। পরের বছর বাইরের একটি আইনি প্রতিষ্ঠানকে এই অভিযোগ তদন্তের দায়িত্ব দেয় নাইকি।

 

নাইকির জেনারেল কাউন্সেল হিলারি ক্রেন এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘বিশ্বাসযোগ্য অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শুরু হওয়া তদন্ত কার্যক্রমে সাহায্য করতে নেইমার অস্বীকৃতি জানানোয় নাইকি তার সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করে।’

 

তদন্ত চলাকালীন নাইকির বিপণন ও প্রচারে নেইমারকে আর দেখা যায়নি। শেষ পর্যন্ত গত বছর আনুষ্ঠানিকভাবে ১৫ বছরের সম্পর্কে ছেদ টানে দুই পক্ষ। পরে আরেক ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান পিউমার সঙ্গে স্পনসর চুক্তি করেন নেইমার।

নেইমারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, নাইকির সঙ্গে নেইমারের চুক্তি বাতিলের কারণ যৌন হয়রানির অভিযোগ ছিল না। এই ভিত্তিহীন অভিযোগ নিয়ে কোনো দাবি পেশ করা হলে নেইমার তা মোকাবিলা করবেন।

 

বাণিজ্যিক কারণে নাইকি নেইমারের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করেছিল বলে জানান সেই মুখপাত্র। ২০১৯ সালে নেইমারের বিরুদ্ধে একবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু যথেষ্ট তথ্য-প্রমাণ না পাওয়ায় সে বছরের আগস্টে অভিযোগটি খারিজ করে দেন আদালত।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com