বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০১:০৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বরিশাল হাসপাতালে  টাকা না দেয়ায় মেলেনি অক্সিজেন, ছটফট করে মারা গেলেন রোগী হেলেনা জাহাঙ্গীরের ২ সহযোগী আটক অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ের সংশ্লিষ্টরা ভ্যাকসিন না নিলে বেতন বন্ধ টিকা বাণিজ্যে অভিযুক্ত ‘হুইপ পোষ্য’কে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হিলিতে তুলা কারখানায় আগুনে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি গাইবান্ধা গ্রাম পুলিশরা মানহীন সাইকেল গ্রহণে অস্বীকৃতি  অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম জয়ে টাইগারদের প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন জগন্নাথপুরে করোনা উপসর্গে চার ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু ২৬০০ ডোজ টিকা বিক্রি করেন হুইপের ভাই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি জয় নিয়ে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ
রাজশাহীর পুঠিয়ার তালেব হত্যার চার্জশিট প্রদান

রাজশাহীর পুঠিয়ার তালেব হত্যার চার্জশিট প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বহুল আলোচিত ট্রাক চালক আবু তালেবকে পিটিয়ে হত্যাকাণ্ডের ৯ মাস পর আদালতে মামলার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন থানা পুলিশ। মামলায় ১৩ জন অভিযুক্তের নাম উল্লেখ থাকলেও পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদনে ২০ জনের নাম উঠে এসেছে। এ ঘটনায় থানা পুলিশ ১০ জন অভিযুক্তকে আটক করতে পারলেও এখনো পলাতক রয়েছেন ১০ জন। বাদির অভিযোগ আদালতে চূড়ান্ত তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার বিষয়টি তিনি জানেন না।

 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও পুঠিয়া থানার পুলিশ পরির্দশক (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ট্রাক চালক আবু তালেব হত্যা মামলার চার্জশিট গত ৬ জুন আদালতে জমা দেয়া হয়েছে। বাদী মামলার এজাহারে ১৩ জন অভিযুক্তের নাম উল্লেখ করে ছিলেন। কিন্তু আমাদের তদন্তে এই ঘটনার সাথে মোট ২০ জন জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। আর এই ঘটনার সাথে জড়িত ১০ জনকে আটক করে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে। বাকি পলাতক অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে।

নিহত আবু তালেবের স্ত্রী ও মামলার বাদি নারগিস বেগম বলেন, আমি খুবই গরিব মানুষ। আমার পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী ছিলেন তিনি। বর্তমানে ছোট তিনটি ছেলে-মেয়েকে নিয়ে খেয়ে না খেয়ে দিনপার করছি। থানায় অভিযোগ দেয়ার পর পুলিশ বলেছিলো তারা আমাকে সঠিক বিচার পাইয়ে দিবে। যার কারণে এই ঘটনায় কত জন অভিযুক্ত ব্যাক্তি আটক হয়েছে তা আমি জানি না। আর চার্জশিট হয়েছে কিনা বা মোট কতজনের নাম দেয়া হয়েছে তাও আমি জানি না। থানা থেকে আমাকে কিছুই জানায়নি।

 

উল্লেখ্য, গত বছর ১৮ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত ৯টার দিকে ট্রাক চালক আবু তালেব বাগমারা উপজেলার ভবানীগঞ্জ থেকে মালামাল নিয়ে পুঠিয়ার দিকে আসছিলেন। পথে তাহেরপুর এলাকায় আসামাত্র ট্রাকের চাপায় ছাগল মারা যায়। এরপর ওই এলাকার ২০/২৫ জনের একটি দল ট্রাকটিকে ধাওয়া করে বাসুপাড়া এলাকায় আটক করেন। পরে তারা চালক আবু তালেবকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। স্থানীয় লোকজন ট্রাক চালককে মুমূর্ষু অবস্থায় পুঠিয়া হাসপাতালে ভর্তি করলে সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

 

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে ও আরো অজ্ঞাতনামা ১২ জনকে আসামি করে থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছিলেন।সে সময় পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত ৫ জনকে ও পরে বিভিন্ন সময় আরও ৫ জনকে আটক করেছেন। নিহত আবু তালেব বাগাতিপাড়া উপজেলার ওয়ালিপাড়া গ্রামের ইব্রাহিম হোসেনের ছেলে। তবে সে গত কয়েক বছর আগে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে পুঠিয়ার ঝলমলিয়া তেল পাম্প এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করে আসছেন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com