বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বরিশাল হাসপাতালে  টাকা না দেয়ায় মেলেনি অক্সিজেন, ছটফট করে মারা গেলেন রোগী হেলেনা জাহাঙ্গীরের ২ সহযোগী আটক অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ের সংশ্লিষ্টরা ভ্যাকসিন না নিলে বেতন বন্ধ টিকা বাণিজ্যে অভিযুক্ত ‘হুইপ পোষ্য’কে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হিলিতে তুলা কারখানায় আগুনে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি গাইবান্ধা গ্রাম পুলিশরা মানহীন সাইকেল গ্রহণে অস্বীকৃতি  অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম জয়ে টাইগারদের প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন জগন্নাথপুরে করোনা উপসর্গে চার ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু ২৬০০ ডোজ টিকা বিক্রি করেন হুইপের ভাই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি জয় নিয়ে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ
বাগমারায় করোনা সংকটে দিশেহারা আম ব্যবসায়ীরা

বাগমারায় করোনা সংকটে দিশেহারা আম ব্যবসায়ীরা

মো: সামিউল ইসলাম, রাজশাহী প্রতিনিধি :

মহামারি করোনা সংকটে বাগমারার আম ব্যবসায়ীরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। বাজারে ক্রেতার অভাবে আম ব্যবসায়ীরা তাদের পাকা আমগুলো বিক্রি করতে না পারায় দিশেহারা হয়ে পড়েছে। বর্তমানে অনেক ব্যবসায়ীরা ছোট বড় আম বাগান কিনে চরম লসের মুখে পড়ে বাগানের আমগুলো আর সংগ্রহ করকে যাচ্ছে না।

 

স্থানীয় বাজার ঘুরে ও আম ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে বাগামারায় গ্রামাঞ্চলে এর ব্যাপক সংক্রামন ছড়িয়ে পড়ে। সপ্তাহের ব্যবধানে আক্রান্তের সংখ্যা দেড়শ ছড়িয়ে যায় বলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্র সূত্রে জানা যায়। করোনা সংক্রামনের এই ব্যপকথা ছড়িয়ে পড়ায় এবার আম ব্যবসায়ী চরম বিপাকে পড়ে যায়। অনেক মত আর আম বেপাপরীরা এখানে আসছে না আম ক্রয় করার জন্য। ফলে ভবানীগঞ্জ সহ আশেপাশের হাট বাজারগুলোতে আম ব্যবসায়ে ধ্বস নেমে আসে। ভবানীগঞ্জ বাজারে গতকাল বুধবার ভালে মানের ল্যাংড়া আম বিক্রি হতে দেখা গেছে ১৫ থেকে ২০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া এই হাটে ক্ষিরসাপাত আমও বিক্রি হয়েছে মাত্র ২০/২৫ টাকা কেজি দরে। এত সস্তা দরে আম নিয়ে এসেও বাজারে ক্রেতার অভাবে আমগুলো বিক্রি করতে পারছে না ব্যবসায়ীরা।

 

আম ব্যবসায়ী সুজন আলী ও জব্বার জানান, তারা এবার আম বাগান কিনে দেড় থেকে দুই লক্ষ টাকা ক্ষতির মুখে পড়েছেন। বাগানের আমগুলো নিয়ে তারা কি করবেন তার কুলকিনারা করতে পারছেন না। আরেক আম ব্যবসায়ী আহাদ আলী জানান, তিনিও দুটি আম বাগান কিনে প্রায় দুই লাখ টাকা লোকসানের শিকার হয়েছেন। এখন আম গুলো পানির দরে বিক্রি করে দিতে চাইলেও ক্রেতা পাচ্ছেন না।

 

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ রাজিবুর রহমান জানান, আম কেনা বেচায় কোন বিধিনিষেধ নেই। কিন্তু করোনার কারণে লোকজন আম খেতে ভয় পাচ্ছে। যদিও আমের সাথে কনোনার কোন সম্পর্ক নেই। বরং আম খেলে শরীরের বিভিন্ন উপকার হবে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com