বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ০৮:০৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বরিশাল হাসপাতালে  টাকা না দেয়ায় মেলেনি অক্সিজেন, ছটফট করে মারা গেলেন রোগী হেলেনা জাহাঙ্গীরের ২ সহযোগী আটক অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ের সংশ্লিষ্টরা ভ্যাকসিন না নিলে বেতন বন্ধ টিকা বাণিজ্যে অভিযুক্ত ‘হুইপ পোষ্য’কে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হিলিতে তুলা কারখানায় আগুনে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি গাইবান্ধা গ্রাম পুলিশরা মানহীন সাইকেল গ্রহণে অস্বীকৃতি  অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম জয়ে টাইগারদের প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন জগন্নাথপুরে করোনা উপসর্গে চার ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু ২৬০০ ডোজ টিকা বিক্রি করেন হুইপের ভাই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি জয় নিয়ে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ
ট্রাকের হেলফার পুলিশ পরিচয়ে প্রেম করে ছাত্রীকে নিয়ে পালানো সময় গণধুলাই

ট্রাকের হেলফার পুলিশ পরিচয়ে প্রেম করে ছাত্রীকে নিয়ে পালানো সময় গণধুলাই

রাজশাহী প্রতিনিধি :

রাজশাহীর বাঘায় একজন ট্রাকের হেলফার ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে স্কুল ছাত্রীর সাথে প্রেম করে তাকে নিয়ে পালানোর পথে গণধুলাই এর শিকার হয়েছে। রবিবার(২৭-জুন) বিকেলে উপজেলার মনিগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার তেঁথুলিয়া গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের ছেলে আহাদ আলী(২৩) নিজেকে (ছদ্দ নাম-আকাশ) এবং ভুয়া পুলিশ পরিচয় দিয়ে মনিগ্রাম এলাকার জনৈক ব্যাক্তির অষ্টম শ্রেনী পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীর সাথে গত এক বছর ধরে প্রেম করে আসছে। এর সূত্র ধরে চারদিন পুর্বে সে ঐ ছাত্রীকে বাড়ি থেকে বের করে তার নিজের বাড়ি নিয়ে আসে। বিষয়টি বুঝতে পেরে স্কুল ছাত্রীর পিতা বাঘা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি(জি.ডি) করে। এরপর ছেলের বাড়ি এক উপজেলা ছাত্রলীগের এক নেতার মাধ্যমে তার মেয়েকে উদ্ধার করে নিজের বাড়ী নিয়ে যায়।

 

 

সর্বশেষ রবিবার(২৭জুন) বিকেলে ঐ যুবক মোবাইলে যোগাযোগের মাধ্যমে আবারও স্কুল ছাত্রীকে তার নিজ বাড়ি থেকে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় মেয়র পরিবার সহ স্থানীয় লোকজন ভুয়া পুলিশ পরিচয় ধারী যুবক আহাদ আলীকে গণধুলাই দেয়। একই সাথে মেয়ের বাবা তার কন্যাকেও মারপিট করে। ঘটনার এক পর্যায় উভয়কে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এনে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে জিডির আলোকে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ হাসপাতালে উপস্থিত থেকে ঐ যুবককে চিকিৎসা দেয়। যার সত্যতা স্বীকার করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক শ্রী-নিবেদিতা চ্যার্টাজি।

 

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি)নজরুল ইসলাম জানান, স্কুল ছাত্রীর বাবা চারদিন পূর্বে যখন স্বেচাছায় তার মেয়ে ছেলের বাড়ি চলে যায় তখন তিনি মামলা করেননি। করেছেন একটি জিডি। অত:পর রবিবার তার মেয়ে পুনরায় যখন ছেলের সাথে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তখন তাকে মারধর করে বলে জানতে পেরেছি। ঘটনাটি আইন হাতে তুলে নেয়ার শামিল। এ বিষয়ে উভয় পক্ষ থেকে অভিযোগ দেয়ার সুযোগ রয়েছে। যদি অভিযোগ পাই তাহলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com