বুধবার, ০৪ অগাস্ট ২০২১, ১২:৫৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বরিশাল হাসপাতালে  টাকা না দেয়ায় মেলেনি অক্সিজেন, ছটফট করে মারা গেলেন রোগী হেলেনা জাহাঙ্গীরের ২ সহযোগী আটক অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ের সংশ্লিষ্টরা ভ্যাকসিন না নিলে বেতন বন্ধ টিকা বাণিজ্যে অভিযুক্ত ‘হুইপ পোষ্য’কে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত হিলিতে তুলা কারখানায় আগুনে প্রায় ১০ লাখ টাকার ক্ষতি গাইবান্ধা গ্রাম পুলিশরা মানহীন সাইকেল গ্রহণে অস্বীকৃতি  অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম জয়ে টাইগারদের প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন জগন্নাথপুরে করোনা উপসর্গে চার ঘণ্টার ব্যবধানে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু ২৬০০ ডোজ টিকা বিক্রি করেন হুইপের ভাই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি জয় নিয়ে যা বললেন মাহমুদউল্লাহ
সুন্দর চুলের গোপন রহস্য কি?

সুন্দর চুলের গোপন রহস্য কি?

নিউজ ডেস্ক :
বর্ষায় চুল পড়া একটি সাধারণ সমস্যা। তৈলাক্ত স্ক্যাল্পের কারণে চুল খুব সহজেই তেলতেলে হয়ে যায়। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে প্রতিদিন শ্যাম্পু করলে চুল হয়ে পড়ে শুষ্ক, যা স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের অন্যতম প্রধান অন্তরায়। অন্যদিকে অহরহ হিটিং টুলসের ব্যবহার ও নিয়মিত অযতেœ বর্ষায় চুলের দশা হয় শোচনীয়। এমন বৃষ্টির মৌসুমে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল সুন্দর চুল পেতে কী করবেন, চলুন জেনে নেওয়া যাক-

 

চুল প্রাণহীন হওয়ার পেছনে মূল কারণ হলো, হেয়ার স্টাইলিং করতে গিয়ে অযথা বিভিন্ন প্রোডাক্ট ও টুলসের ব্যবহার। কালার, ডাই, ব্লিচ কিংবা স্ট্রেটনিং ও ওয়েভিং- এসবের জন্য যে ধরণের প্রোডাক্ট ব্যবহার করা হয়, তাতে প্রচুর পরিমাণে কেমিক্যাল থাকে যা স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের অন্তরায়। এছাড়া স্ট্রেটনার, ড্রায়ার ইত্যাদির অহরহ ব্যবহার তো আছেই।

 

এক্ষেত্রে একভাগ ক্যাস্টর অয়েল এবং দুইভাগ নারকেল তেল মিশিয়ে সামান্য গরম করে চুলের ডগায় লাগাতে পারেন। গরম পানিতে তোয়ালে ডুবিয়ে নিয়ে অতিরিক্ত পানি নিংড়ে তা চুলে জড়িয়ে রাখুন। মিনিট পাঁচেক রেখে আবার গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে নিন। একই পদ্ধতি ৩-৪ বার রিপিট করুন।

 

চুলে যে ধরণের প্রসাধনী ব্যবহার করুন না কেন, খুব জোরে তা ম্যাসাজ করবেন না। আঙ্গুলের ডগা দিয়ে আলতো করে ম্যাসাজ করুন। এতে চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন ভালো হবে। সারারাত এভাবে রেখে পরদিন মাইল্ড হারবাল শ্যাম্পু ব্যবহার করে চুল ধুয়ে নিন। গরম পানিতে চুল ধোয়ার অভ্যাস থাকলে তা বদলে ফেলুন।

একটা ডিমের সঙ্গে এক চা-চামচ করে ভিনিগার ও মধু মিশিয়ে স্ক্যাল্পে লাগান। আধঘণ্টা রেখে চুল ধুয়ে ফেলুন। অথবা টকদই এবং ডিম একসঙ্গে ফেটিয়েও চুলে লাগাতে পারেন। এতে চুলে ভলিউম আসবে। জবাফুল এবং মেহেদি একসঙ্গে বেটে চুলে লাগাতে পারেন। এতে চুল ভালো থাকবে।

 

চুল এবং স্ক্যাল্প উভয়ই যদি তৈলাক্ত প্রকৃতির হয়, সেক্ষেত্রে প্রতিদিন শ্যাম্পু করলেই হবে না, সেই সঙ্গে প্রতিবারই কন্ডিশনারও ব্যবহার করা প্রয়োজন। আপনার চুলের ধরণ অনুযায়ী, আপনিও চাইলে প্রতিদিন শ্যাম্পু করতে পারেন। তবে মাইল্ড হারবাল শ্যাম্পু ব্যবহার করলে ভালো। অল্প পরিমাণে শ্যাম্পু নিয়ে তা সামান্য পানিতে মিশিয়ে পাতলা করে চুলে লাগান। চুল ধুয়ে কন্ডিশনার ও হেয়ার সিরাম ব্যবহার করুন।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com