বুধবার, ২৯ Jun ২০২২, ০৯:৩৯ অপরাহ্ন

দেশের প্রথম পুলিশ জাদুঘর লালমনিরহাটে উদ্বোধন আগামীকাল

দেশের প্রথম পুলিশ জাদুঘর লালমনিরহাটে উদ্বোধন আগামীকাল

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ পুলিশের গৌরবময় ইতিহাস গাঁথা এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে বাঙ্গালি পুলিশ সদস্যদের অকুতোভয় আত্নত্যাগ,দেশপ্রেম ও
গৌরবোজ্জ্বল অবদানের ইতিহাস তুলে ধরতে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় প্রতিষ্ঠা হয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘর।
হাতীবান্ধা থানা প্রাঙ্গনে অবস্থিত ১৯১৬সালের একটি বিট্রিশ আমলের ভবনের মূল অবকাঠামো ঠিক রেখে সংস্কার করে পুলিশ জাদুঘরটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার বর্তমানে অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত  আবিদা সুলতানা বিপিএম,পিপিএম তার নিজ তত্বাবধায়নে ২০২১ সালের ৩১ জানুয়ারী এ জাদুঘরটি প্রতিষ্ঠার কাজে হাত দেন। এক বছরেরও অধিক সময় ধরে পুলিশের বিভিন্ন ঐতিহ্য সংগ্রহ সংরক্ষণ ও বিভিন্ন কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে ২০২২ এর ফেব্রুয়ারী মাসে জাদুঘরটির কাজ শেষ করেন।  এর মূল ভবনে ৭টি কক্ষকে বাংলাদেশ পুলিশের ধারাবাহিক বিবর্তনকে তুলে ধরার জন্য ৭টি গ্যালারি করা হয়েছে। এটির মূল জাদুঘরের প্রবেশ দ্বারের সামনে রয়েছে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি ও স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি।আর এর ভবনের চারপাশের বারান্দায় ২৬টি স্তম্ভে ধারাবাহিকভাবে পুলিশের উদ্ভব ও প্রতিষ্ঠাসহ তথ্যপ্রযুক্তিতে সমৃদ্ধ আধুনিক বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সচিত্র বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে। এর ৭টি  গ্যালারিতে রয়েছে সুলতান ও মোগল আমলে ভারতীয় উপমহাদেশে পুলিশের উদ্ভব ওক্রমবিকাশ,বির্ট্রিশ আমলে আধুনিক পুলিশের যাত্রা, পাকিস্তান আমলে ভারতীয় উপমহাদেশ ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে পুলিশের অবদান,বাংলদেশের ইতিহাসঐতিহ্য বিষয়ক প্রামাণ্যচিত্র প্রর্দশণী গ্যালারি, স্বাধীনতা যুদ্ধে পাটগ্রাম অঞ্চলকে মুক্তাঞ্চল রাখায় পুলিশের ভূমিকা, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের প্রামাণ্য চিত্র, বাংলাদেশ পুলিশের ধারাবাহিক বির্বতন ও আধুনিক পুলিশ সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্যচিত্র  রয়েছে গ্যালারিতে। তাছাড়াও শিশুবান্ধব পুলিশের কর্মকান্ড তুলে ধরার জন্য জাদুঘরে স্থাপিত হয়েছে শিশু  কর্ণার।
পুলিশ জাদুঘর বিষয়ে লালমনিরহাটের নারী সমাজসেবক ফেরদৌসি বেগম বিউটি  বলেন, যেহেতু লালমনিরহাট মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে গৌরব গাঁথা একটি অঞ্চল। যুদ্ধকালীন সময়ে ১১টি  সেক্টরে মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশেই ছিল ৬নং সেক্টর।আর সেটিও ছিল লালমনিরহাটের বুড়িমারীতে।স্বাধীনতা যুদ্ধে লালমনিরহাটে পুলিশের অবদান ছিল অনেক।তাই লালমনিরহাটে  বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘর হওয়ায় আমরা জেলাবাসী আনন্দিত। ভবিষ্যত প্রজন্ম এর মাধ্যমে পুলিশের ধাপে ধাপে পরিবর্তন আর উন্নয়ন এবং মুক্তিযুদ্ধে পুলিশের ভূমিকা  বিষয়ে জানতে পারবে।
এই বিষয়ে লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা বলেন, মুক্তিযুদ্ধে পুলিশের ভূমিকা মানুষকে জানানো ও পুলিশের বিবর্তন এবং আধুনিকায়নকে তুলে ধরতে  পুলিশ প্রধানের সম্মতিক্রমে বাংলাদেশ পুলিশ জাদুঘর লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় প্রতিষ্ঠা করেছি। যা আগামী ২২জুন পুলিশের আইজিপি ড.বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) উদ্ভোধন করবেন। এ জাদুঘরটি সাপ্তাহিক ছুটি বুধবার বাদে সপ্তাহের ৬দিনই জনসাধারনের  জন্য উম্মুক্ত থাকবে। ১০ টাকা প্রবেশ মূল্য দিয়ে জাদুঘরের ভেতরে প্রবেশ করা যাবে।

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com