রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৫৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে রানীশংকৈলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা ঠাকুরগাঁও জেলা আইন শৃংখলা কমিটির সভা আধুনিক বাংলাদেশের  রুপকার জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষি বান্ধব সরকার-এমপি গালিব ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শন অনুষ্ঠিত হয়েছে শিবগঞ্জে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১৫ শিবগঞ্জে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন-সমাপনী অনুষ্ঠিত রানীশংকৈল ডিগ্রি কলেজ মাঠে মুক্ত মঞ্চের শুভ উদ্বোধন জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে জাতীয় দলের পাঁচ নারী ক্রীড়াবিদদের সংবর্ধনা গোপালগঞ্জে নানান আয়োজনের মধ্য পালিত হলো পহেলা বৈশাখ আমতলীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড নিহত-১, আহত-২
নার্সকে গালি দেওয়ার অভিযোগ রামেক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে

নার্সকে গালি দেওয়ার অভিযোগ রামেক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রামেক হাসপাতালে কর্মরত নার্সদের রোগীদের সামনেই গালিগালাজের অভিযোগ উঠেছে রামেকের এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। এই ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে ও ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানীর সাথে দেখা করে অভিযোগ করেছেন নার্সিং অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দরা।

রোববার(১৯ জুন) সকালে হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ উঠা চিকিৎসকের নাম ডা. আলমগীর হোসেন। তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অর্থোপেডিক্স বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

রামেক হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, রোববার (১৯ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ডা. আলমগীর হোসেন ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে রাউন্ডে যান। সে সময় নার্সদের কেউ রোগীদের ওষুধ দিচ্ছিলেন, কেউ ইনজেকশন কিংবা স্যালাইন লাগাচ্ছিলেন। তাই চিকিৎসকের কাছে যেতে তাদের একটু দেরি হয়। দুই-তিন মিনিট পর দুজন সিনিয়র স্টাফ নার্স তাঁর কাছে যান।
এ সময় তাঁদের দেখেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ডা. আলমগীর হোসেন। এতক্ষণ কোথায় ছিলে, প্রশ্ন করে তিনি সব নার্স সম্পর্কেই আপত্তিকর কথা বলেন। অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজও করেন। তিনি নার্সিং সুপারিনটেনডেন্টকে ফোন করে ওই দুই নার্সকে এই ওয়ার্ড থেকে সরিয়ে অন্য ওয়ার্ডে দেওয়ারও নির্দেশ দেন।

ভুক্তভেুাগী নার্সরা জানান, রোগী ও তাদের স্বজনদের সামনেই এভাবে গালাগাল করা তাঁদের জন্য ভীষণ অপমানজনক। এ ঘচনায় ঔই দুই নার্স মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন। তাঁরা বিষয়টি নার্সিং অ্যাসোসিয়েশনকে জানিয়েছেন। এরপর তাৎক্ষণিকভাবে নার্সিং অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা হাসপাতালের পরিচালকের সঙ্গে দেখা করে এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সোমবার এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা লিখিত অভিযোগ করতে পারেন বলেও হাসপাতাল সূত্র নিশ্চিত করেছে।
এবিষয়ে ডা. আলমগীর হোসেন বলেন, ‘গালাগাল নয়, একটু বকাবকি করেছি। এই কারণেই তাঁরা হয়ত একটু মন খারাপ করেছে।’

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বলেন, ‘হাসপাতালটাও একটা পরিবারের মতো। পরিবারের দুই ভাই, তিন বোন থাকলে যেমন একটু-আধটু বিভিন্ন ঘটনা ঘটে, এটা সে রকমই। আমরা বিষয়টা দেখছি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শেয়ার করুন .....




© 2018 allnewsagency.com      তত্ত্বাবধানে - মোহা: মনিকুল মশিহুর সজীব
Design & Developed BY ThemesBazar.Com